প্রেডিকশন (Prediction)

    টটেনহ্যাম হটস্পার্স ২ – ৩ আর্সেনাল

    আগামী রবিবার বিকেলে আরো একবার নিজেদের মাঠে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্সেনালকে স্বাগতম জানাতে যাচ্ছে টটেনহ্যাম হটস্পার্স। আরো একটি শ্বাসরুদ্ধকর নর্থ লন্ডন ডার্বি উপভোগ করতে যাচ্ছে বিশ্ব।

    মৌসুমের প্রথমার্ধে রিভার্স ফিক্সচারে এন্তোনিও কন্তে’র শিষ্যরা ৩-১ গোলে ধরাসয়ী হয়েছিল এমিরেটস স্টেডিয়ামে। এবার তারা সেই ফলাফলের উল্টোটিই চাইবে, যাতে করে তারা গানারস’দের শিরোপার আশাকে দমিয়ে দিতে পারে, এবং সাথে সাথে নিজেদের শীর্ষ চারে ঢোকার আশা বাড়িয়ে নিতে পারে।

    আরেক দিকে, মিকেল আর্তেতা’র আর্সেনাল দলও জানে যে, এই ম্যাচটি সহ এখন থেকে তারা যতগুলি ম্যাচই খেলবে, তার সবকটিই তাদের জন্য মাস্ট-উইন ম্যাচ হবে, কেননা তাদের পেছনে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি হন্যে হয়ে লেগে পড়েছে। একটি ভুলই তাদের শিরোপার স্বপ্নকে ধূলিসাৎ করে দিতে পারে।

    মৌসুমের প্রথম ভাগে তারা টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর বিপক্ষে যেমন পারফর্মেন্স উপহার দিয়েছিল, তেমনি একটি পারফর্মেন্স তাদেরকে আবারো পরিবেশন করতে হবে। তবে, এবার কাজটি আরো কঠিন হবে, কারণ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে তাদের সবচেয়ে পুরনো শত্রুদের ঘরের মাঠে।

    উভয় দলই অবশ্য ম্যানচেস্টার ডার্বি’র ফলাফলের প্রেক্ষিতে নিজেদের গেমপ্ল্যান সাজাবে, যা কি না একদিন আগে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে।

    গুরুত্বপূর্ণ দিকসমূহ (Key notes)

    • প্রিমিয়ার লীগে আর্সেনাল একটি ১১ ম্যাচের অপরাজিত থাকার ধারায় অবস্থান করছে। এর মধ্যে তারা মোট ৯টি ম্যাচে জয়লাভ করেছে, এবং ড্র করেছে ২টিতে।
    • ৩৭টি গোল নিয়ে টটেনহ্যাম হটস্পার্স হল এবারের মৌসুমে প্রিমিয়ার লীগের তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা দল। শুধুমাত্র লীগের শীর্ষ দুই দল, অর্থাৎ ম্যানচেস্টার সিটি এবং আর্সেনাল, তাদের চেয়ে বেশি গোল করতে পেরেছে।
    • টটেনহ্যাম হটস্পার্স তাদের খেলা সর্বশেষ ৪টি হোম ম্যাচের মধ্যে ৩টিতেই পরাজিত হয়েছে (১টি জয়)। এর আগে অবশ্য টানা ৮টি হোম ম্যাচে জয়ের দেখা পেয়েছিল এন্তোনিও কন্তে’র শিষ্যরা।
    • টটেনহ্যাম হটস্পার্স ঘরের মাঠে খেলা তাদের সর্বশেষ ৫টি লন্ডন ডার্বির কোনটিতেই জয়ের দেখা পায়নি। এবারের মৌসুমে ঘরের মাঠে তারা কেবলমাত্র একটি লন্ডন ডার্বিতেই জয়লাভ করতে পেরেছে। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচটিতে তারা ফুলহ্যামকে ২-১ গোলে অপদস্থ করে।
    • আর্সেনাল তাদের খেলা সর্বশেষ ১৮টি প্রিমিয়ার লীগ ম্যাচের মধ্যে কেবলমাত্র একটিতে পরাজিত হয়েছে। এ যাত্রায় তারা মোট ১৫টি জয় হাসিল করে নেয় (২টি ড্র)। প্রকৃতপক্ষে, সেই ১৮টি ম্যাচের মধ্যে কেবল একটিতেই কোন গোল স্কোর করতে ব্যর্থ হয় গানারস’রা। নিউক্যাসেলের বিপক্ষে খেলা তাদের সর্বশেষ ম্যাচটিতে তারা গোলশূন্য ড্র করতে সমর্থ হয়।
    • আর্সেনাল তাদের খেলা সর্বশেষ ৬টি প্রিমিয়ার লীগ অ্যাওয়ে ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে (৫টি জয়, ১টি ড্র)। এ যাত্রায় তারা মোট ৪টি ক্লিন শিটও রাখতে সক্ষম হয়।
    পড়ুন:  EPL সম্প্রচারে অগ্রগতি: একটি ব্যাপক ওভারভিউ

    ফর্ম বিবরণীঃ টটেনহ্যাম হটস্পার্স (Form Guide: Tottenham Hotspurs)

    সেলহার্স্ট পার্কে নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচটিতে একটি অসাধারণ জয় হাসিল করে নেয় স্পার্স। এখন তারা পর পর দুইটি ম্যাচে জয়ের আশায় মাঠে নামবে। ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ম্যাচটিতে তারা একটি হতাশাজনক প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধে প্রাণ ফিরে পায়, এবং চার চারটি গোল করে ঈগলস’দেরকে তুলোধুনো করে ফেলে। বিশ্বকাপের বিরতির পর সেটিই ছিল স্পার্সের প্রথম জয়, এবং তাদের খেলা সর্বশেষ ৫টি ম্যাচের মধ্যে দ্বিতীয় জয়।

    টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর বর্তমান হোম ফর্মের দিকে তাকালে দেখা যায় যে, তারা তাদের খেলা সর্বশেষ ৪টি হোম ম্যাচের মধ্যে ৩টিতেই পরাজিত হয়েছে। এবারের মৌসুমে এখন পর্যন্ত ঘরের মাঠে কেবলমাত্র দুইটি ম্যাচেই ক্লিন শিট আনতে পেরেছে স্পার্স।

    এই উইকেন্ডে ইতিবাচক ফলাফল অর্জন করতে হলে তাদেরকে ম্যাচটিতে স্বাভাবিকের তুলনায় আরো ভালো সূচনা করতে হবে, এবং আর্সেনালকে প্রথম থেকেই চাপের মধ্যে রাখতে হবে।

    ফর্ম বিবরণীঃ আর্সেনাল (Form Guide: Arsenal)

    আর্সেনাল তাদের খেলা সর্বশেষ ম্যাচটিতে নিউক্যাসেল ইউনাইটেড এর বিপক্ষে একটি হতাশাজনক গোলশূন্য ড্র এর শিকার হয়। তাদের সেই ফলাফলটির কারণে লীগ টেবিলের শীর্ষে তাদের লিডটি ৭ পয়েন্ট থেকে কমে গিয়ে ৫ পয়েন্টে নেমে আসে।

    তবে, তাদের অসাধারণ অ্যাওয়ে ফর্মের কারণে আগামী রবিবারের ম্যাচটিতেও মিকেল আর্তেতা’র শিষ্যদেরকেই ফেভারিট গণ্য করতে হচ্ছে। এবারের মৌসুমে নিজেদের অ্যাওয়ে ম্যাচগুলিতে আর্সেনালেরই রয়েছে সবচেয়ে বেশি ম্যাচে (৭টি) জয়ের রেকর্ড, সর্বোচ্চ পয়েন্ট (২২) অর্জনের রেকর্ড, সবচেয়ে কম সংখ্যক গোল (৬টি) হজম করার রেকর্ড, এবং সবচেয়ে সেরা গোল ব্যবধান (+১২)।

    এমন একটি টটেনহ্যাম হটস্পার্স দল, যারা কি না খুবই শোচনীয় হোম ফর্ম পার করছে, তাদের বিপক্ষে এই ম্যাচটিতে অবশ্যই আর্সেনালই তিন পয়েন্ট অর্জনের জন্য ফেভারিট।

    টটেনহ্যাম হটস্পার্স বনাম আর্সেনাল সম্পর্কিত কিছু তথ্য (Tottenham Hotspurs Vs Arsenal Facts)

    • সাম্প্রতিক মৌসুমগুলিতে এই ফিক্সচারটিতে ধারাবাহিকভাবে আর্সেনালকে হারিয়ে আসছে স্পার্স। প্রকৃতপক্ষে, ২০১৪ সালের পর থেকে ঘরের মাঠে গানারস’দের নিকট হারেনি টটেনহ্যাম। এছাড়া, টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর বিপক্ষে খেলা তাদের সর্বশেষ ৯টি ম্যাচের মধ্যে ৬টিতেই হেরেছে আর্সেনাল, আর বাকি ৩টিতে করেছে ড্র।
    • এবারের প্রিমিয়ার লীগ মৌসুমে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে সবচেয়ে বেশি গোল করার রেকর্ডটি রয়েছে স্পার্সের দখলে (২৭টি)। অর্থাৎ, চলতি মৌসুমে তাদের করা মোট ৩৭টি গোলের মধ্যে ২৭টিই এসেছে খেলার দ্বিতীয়ার্ধে (৭৩%), যা কি না পার্সেন্টেজ এর দিক দিয়েও প্রিমিয়ার লীগের সর্বোচ্চ। অন্যদিকে, শুধুমাত্র নিউক্যাসেল ইউনাইটেডই (৮২%) খেলার দ্বিতীয়ার্ধে আর্সেনালের থেকে বেশি সংখ্যক গোল (৭১%) হজম করেছে। এদিক থেকে দেখলে, স্পার্সকেই এই ম্যাচটি জেতার জন্য ফেভারিট মানতে হবে।
    • টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর হ্যারি কেইন (যিনি কি না ১৪টি গোল নিয়ে নর্থ লন্ডন ডার্বির সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতায় পরিণত হয়েছেন) এখন পর্যন্ত ঘরের মাঠে আর্সেনালের বিপক্ষে খেলা তার মোট ৮টি ম্যাচের মধ্যে কেবলমাত্র একটিতেই পরাজিত হয় (সব মিলিয়ে ৯টি গোল)। শুধুমাত্র জুলাই ২০২০ এ অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতেই তিনি গোল করতে অক্ষম হয়েহিলেন।
    • প্রিমিয়ার লীগের গত মৌসুমটি শুরুর পর থেকে যেকোন লন্ডন ডার্বিতে সবচেয়ে বেশি গোল ইনভলভমেন্ট উপহার দিয়েছেন আর্সেনালের স্বর্ণবালক বুকায়ো সাকা — (১১টি — ৪টি গোল, এবং ৭টি এসিস্ট)। এছাড়া, এবারের মৌসুমের এই ফিক্সচারটির রিভার্স লেগে, যখন স্পার্সকে ৩-১ গোলে হারিয়েছিল গানারস’রা, সেবারও কিন্তু সবচেয়ে বেশি গোলের সুযোগ ঐ সাকাই তৈরি করেছিলেন (৫টি।
    পড়ুন:  ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম বায়ার্ন মিউনিখ প্রিভিউ

    যেসকল খেলোয়াড়দের উপর সবার নজর থাকবে (Players to watch out for)

    এডি এনকেটিয়া – আর্সেনাল (Eddie Nketiah – Arsenal)

    মৌসুমের শুরুতে মোটেও ভাবা যায়নি যে, আর্সেনাল দলের জন্য এনকেটিয়া এতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। তবে, গ্যাব্রিয়েল জেসুস দীর্ঘকালীন ইঞ্জুরিতে আক্রান্ত হওয়ায় এখন আর্সেনালের মূল স্ট্রাইকার অবশ্যই এনকেটিয়া। এখন তাই তিনি লাইমলাইটেও চলে এসেছেন, আবার দূর্দান্ত পারফর্মও করে চলেছেন।

    সকল প্রতিযোগিতায় তিনি তার খেলা সর্বশেষ ৫টি ম্যাচে মোট ৪টি গোল করতে সক্ষম হোন। এই ম্যাচটিতে প্রবেশ করার পূর্বে তাই এই ২৩ বছর বয়সী বেশ আত্মবিশ্বাসীই থাকবেন। ম্যাচটি জিততে হলে আর্সেনালের হয়ে তাকে বেশ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি পারফর্মেন্স উপহার দিতে হবে বলেই আমরা ধারণা করছি।

    হ্যারি কেইন – টটেনহ্যাম হটস্পার্স (Harry Kane – Tottenham Hotspurs)

    যেহেতু হিউন মিং সন এবারের মৌসুমে নিজের সেরা ফর্মে নেই, সেহেতু স্পার্সের হয়ে গোল করার দায়িত্বটি এবার হ্যারি কেইন নিজের ঘাড়েই তুলে নিয়েছেন, এবং নিজের প্রিমিয়ার লীগ ক্যারিয়ারের শ্রেষ্ঠ গোলস্কোরিং মৌসুম পার করছেন।

    তবে, ইতিমধ্যে তিনি নর্থ লন্ডন ডার্বির সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে ফেলেছেন, এবং এই ফিক্সচারে তার আগের ১৫টি গোলের সাথে আরো গোল যুক্ত করার জন্য মুখিয়ে থাকবেন।

    টটেনহ্যাম হটস্পার্স বনাম আর্সেনাল প্রেডিকশন (Tottenham Hotspurs Vs Arsenal Prediction)

    এবারের মৌসুমে টটেনহ্যাম হটস্পার্স বার বার প্রমাণ করেছে যে, তারা প্রায় প্রতি ম্যাচেই কিছুটা ধীরগতির সূচনা করে থাকে। বার বার তাদেরকে গোল শোধ করে ম্যাচে ফিরতে হয়েছে, এবং ব্রেন্টফোর্ডের বিপক্ষে তাদের ২-২ গোলের ড্র’টিই সেটির প্রমাণ। খেলার দ্বিতীয়ার্ধে তারা অনেকটা শ্রেয় খেলে থাকে, তবে প্রথমার্ধে তাদের ভালো খেলার ব্যর্থতার কারণেই আমরা প্রেডিক্ট করেছি যে, আর্সেনাল এই ম্যাচটি ৩-২ গোলে জিতে নিবে।

    আর্সেনাল একটি অত্যন্ত চালাক ও কর্মঠ দল, যারা টটেনহ্যামের সকল বাজে অভ্যাসের ফায়দা নেওয়ার ক্ষমতা রাখে, এবং নিমিশেই খেলার মোড় পরিবর্তন করে দিতে পারে। টটেনহ্যাম হটস্পার্সও সেখান থেকে ফিরে আসার চেষ্টা করবে, ঠিক যেমনটি ব্রাইটন এন্ড হোভ এলবিয়নও করেছিল। কিন্তু, আর্সেনাল নিজেদের দূর্গ শেষমেষ রক্ষা করতে পারবে, এবং পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়েই টটেনহ্যাম হটস্পার্স স্টেডিয়াম ছাড়বে বলেই আমাদের ধারণা।

    পড়ুন:  ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম এভারটন প্রিভিউ
    Share.
    Leave A Reply