পুরো পৃথিবীর নজর থাকবে সেলহাস্ট পার্কের উপর যখন আগামী শুক্রবার রাতে প্রিমিয়ার লীগের ২০২২-২৩ মৌসুমের পর্দা উঠবে ক্রিস্টাল প্যালেস এবং আর্সেনালের মধ্যকার ম্যাচটির মধ্য দিয়ে। গত মৌসুমে খুবই হতাশাজনকভাবে শীর্ষ চারে থাকার সুযোগ হাতছাড়া করার পর আর্সেনাল এখন চাইবে তাদের চাওয়া ও পাওয়ার মধ্যে আরো ভালোভাবে একটি মিলবন্ধন তৈরি করতে। তাদের চাওয়াগুলোর মধ্যে অন্যতম হল চ্যাম্পিয়নস লীগে জায়গা করে নেওয়া এবং সম্ভব হলে বিভিন্ন শিরোপার লড়াইয়ে সামিল থাকা।

ক্রিস্টাল প্যালেসের জন্য নতুম মৌসুমের শুরুটা হবে আরো উদ্যমের। গত মৌসুমে তারা প্রিমিয়ার লীগ টেবিলের শীর্ষ ১০ এ জায়গা করে নেওয়া থেকে মাত্র ৩ পয়েন্ট দূরে ছিল, এবং এবার প্যাট্রিক ভিয়েরা চাইবেন এটি দেখতে যে লীগ টেবিলের কত উপরে তার দল পৌঁছাতে পারে। এই দুই দলের মধ্যকার গত ১০টি ম্যাচের ৮টিতেই উভয় দলই গোল করতে সক্ষম হয়। হয়তো বা আমাদের সামনে আরও একটি শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচই অপেক্ষা করছে, কারণ নতুন মৌসুমের শুরুতে উভয় দলের জন্যই অনেককিছু প্রমাণ করার রয়েছে।

ফর্ম বিবরণীঃ ক্রিস্টাল প্যালেস (Form Guide: Crystal Palace)

ক্রিস্টাল প্যালেস বেশ সন্তোষজনক একটি প্রি সিজন ট্যুরই পার করেছে, যেখানে তারা তাদের শেষ দুইটি ম্যাচে কুইন্স পার্ক রেঞ্জার্স এবং মন্টপেলিয়ে’র বিরুদ্ধে জয়ও হাসিল করে নিতে সক্ষম হয়েছে। মোটের উপর তারা তাদের সর্বশেষ চারটি ক্লাব ফ্রেন্ডলির মধ্যে তিনটিতেই জয়লাভ করেছে।

এবার অবশ্য তারা একটি সম্পূর্ণ আলাদা পরীক্ষার সম্মুখীন হতে যাচ্ছে, কারণ তারা যে আর্সেনাল দলটির মুখোমুখি হবে সেই দলটি একেবারেই নতুন করে সাজানো এবং গোলের জন্য পুরোপুরিভাবে ক্ষুধার্থ। আশা করা যাচ্ছে যে, তাদের নতুন সাইনিং চেইক দুকুরে মৌসুমের প্রথম ম্যাচে তার নতুন হোম দর্শকদের সামনেই নিজের ডেব্যুটি করে নিতে পারবেন। শুধুমাত্র মিডফিল্ডার জেমস ম্যাকআর্থারই সেদিন ইঞ্জুরির কারণে প্যালেস দল থেকে বাইরে থাকবেন।

পড়ুন:  লুটন বনাম শেফিল্ড প্রিভিউ

ফর্ম বিবরণীঃ আর্সেনাল (Form Guide: Arsenal)

এই ফিক্সচারটিতে বেশি সংখ্যক মানুষের নজর থাকবে গানারস’দের উপর, এবং এই ম্যাচটিতে তারাই অনেক বড় আকারে ফেভারিট। প্রি সিজনে আশ্চর্যজনকভাবে আর্সেনালের ফর্ম ছিল দূর্দান্ত, এবং তারা তাদের সবগুলি ম্যাচই জিতে নিতে সক্ষম হয়েছিল। এর মধ্যে রয়েছে লিভারপুলের বিরুদ্ধে ৪-০ গোলের দুর্ধর্ষ জয়, এবং স্প্যানিশ বিগ বয়েজ সেভিয়া’র বিরুদ্ধে ৬-০ গোলের বিধ্বংসী জয়ও।

ম্যানচেস্টার সিটি থেকে আর্সেনালে পাড়ি জমানোর পর থেকেই গ্যাব্রিয়েল জেসুস আছেন অসাধারণ ফর্মে। তারই ফলশ্রুতিতে তিনি প্রি সিজনেই নিজের নামে করে নিয়েছেন মোট ৭টি গোল, যার মধ্যে রয়েছে এমিরেটস কাপে সেভিয়ার বিরুদ্ধে করা তার অনবদ্য হ্যাট্রিকটিও।

এছাড়া, কিয়েরান টিয়ার্নি এখনো ইঞ্জুরির সাথে লড়াইয়ে লিপ্ত থাকায় আর্সেনালের নতুন সাইনিং ওলেক্সান্ডার জিনচেঙ্কোকে তার ফার্স্ট টিম ডেব্যু করতে দেখা যেতে পারে।

তবে, আর্সেনালের আরেক নতুন সাইনিং ফ্যাবিও ভিয়েরাকে মাঠে দেখতে অবশ্য গানারস সমর্থকদের আরো অপেক্ষা করতে হবে, কারণ ইঞ্জুরির কারণে তিনি প্রি সিজনেও যোগ দিতে পারেননি। তাকেহিরো তমিয়াসুও বর্তমানে ইঞ্জুরির সাথে লড়াই করে যাচ্ছেন, যার ফলে এই ম্যাচটিতে বেন হোয়াইটকে রাইট ব্যাক পজিশনে দেখা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে, দলের সেন্ট্রাল ডিফেন্সে গ্যাব্রিয়েল ম্যাগালহেইস এর সাথে দেখা যাবে গত মৌসুম ফরাসি লীগে লোনে কাটানো উইলিয়াম সালাইবাকে।

প্রেডিকশন (Prediction)

সাম্প্রতিক সময়ে আর্সেনালের জন্য ক্রিস্টাল প্যালেস অবেকাংশেই একটি বগি দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। প্রকৃতপক্ষে, গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লীগের উভয় লেগেই ক্রিস্টাল প্যালেস আর্সেনালকে রুখে দিয়েছিল। এমিরেটস স্টেডিয়ামে ২-২ গোলে ড্র করার পর মৌসুমের শেষের দিকে সেলহাস্ট পার্কে তারা আর্সেনালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছিল। সেই ম্যাচটির পরেই আর্সেনালের শীর্ষ চারে জায়গা করে নেওয়ার আশা গুড়িয়ে যেতে শুরু করেছিল।

দুই দলের মধ্যকার গত পাঁচটি ম্যাচ আমলে নিলে দেখা যায় যে, তার মধ্যে আর্সেনাল মাত্র ১টিতেই জয়লাভ করতে সক্ষম হয়েছিল। তবে, মিকেল আর্তেতা’র অধীনে এই আর্সেনাল দলটি পুরোপুরি নতুনভাবে সজ্জিত, এবং আমরা মনে করি এই ম্যাচটি থেকে অ্যাওয়ে দল অর্থাৎ আর্সেনালই তিন পয়েন্ট নিয়ে ঘরে ফিরতে পারবে। পুরো প্রি সিজন জুড়েই গ্যাব্রিয়েল জেসুস রয়েছেন অসাধারণ স্কোরিং ফর্মে, এবং আমরা মনে করি এই ম্যাচটিতেও তিনি স্কোরশিটে জায়গা করে নিতে সক্ষম হবেন।

পড়ুন:  নিউক্যাসল বনাম ব্রাইটন রিপোর্ট

ক্রিস্টাল প্যালেস ১ – ২ আর্সেনাল

২.৫ গোলের উর্ধ্বে

ক্রিস্টাল প্যালেস +১.৫০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

Share.
Leave A Reply