লিভারপুল (Liverpool)

ইয়ুর্গেন ক্লপের অল রেডস বাহিণী নতুন মৌসুমের পর্দা উত্তোলনকারী ম্যাচ ‘কমিউনিটি শিল্ড’ এ গত মৌসুমের প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটিকে হারিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে।

নিজেদের প্রি সিজন ট্যুরে অল রেডস’রা কিছুটা মিশ্র অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে। পুরো ট্যুর জুড়েই তারা সাদিও মানে’র অনুপস্থিতি টের পেয়েছে, এবং তালমিল খুঁজে পেতে বেশ হিমসিমও খেয়েছে। তবে, গত শনিবারের পারফর্মেন্স দেখলেই বোঝা যায় যে, তারা সঠিক সময়ে ঠিকই জ্বলে উঠতে সক্ষম, এবং তাদের দিনে তারা সবচেয়ে বড় বড় দলকেও বাজিমাত করতে সক্ষম।

প্রি সিজন জুড়েই লিভারপুলের নতুন তারকা স্ট্রাইকার ডারউইন নুনেজকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলিতে সমালোচনা ও বিদ্রুপের ঝড় উঠেছিল। কিন্তু, প্রি সিজনের শেষের দিকে তার করা এক ম্যাচে চার গোলের কীর্তি এবং ম্যান সিটির বিরুদ্ধে তার ক্ষণিকের ক্যামিও এপিয়ারেন্সই বুঝিয়ে দিয়েছে যে, এই পর্যায়ে ভালো করার ক্ষমতা তিনি রাখেন।

গত মৌসুমের নানা হতাশাকে ছাপিয়ে ইয়ুর্গেন ক্লপ এবং তার সতীর্থরা অবশ্যই চাইবেন যেন নতুন মৌসুমের শুরুটা হয় একটি জয়ের মধ্য দিয়েই।

ফুলহ্যাম (Fulham)

কটেজারস খ্যাত ফুলহ্যাম, যারা কি না প্রিমিয়ার লীগের বগি দল হিসেবেও বেশ পরিচিত, এবার প্রিমিয়ার লীগে অবশ্যই এসেছে একটির বেশি মৌসুম কাটানোর উদ্দেশ্য নিয়েই। ইংলিশ ফুটবলের সর্বোচ্চ শাখায় সাম্প্রতিক কালে তেমনটি তাদের একদমই করে ওঠা হয়নি। চ্যাম্পিয়নশিপ ফুটবল থেকে প্রমোশন নিয়ে যেবারই তারা প্রিমিয়ার লীগে এসেছে, সেবারই আবার প্রিমিয়ার লীগ থেকে রেলিগেটেড হয়ে তারা চ্যাম্পিয়নশিপে ফেরত গিয়েছে। তবে, ৯০ পয়েন্টের বেশি নিয়ে চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা জেতার পর এবং প্রতিপক্ষদের জালে প্রচুর গোল ঢুকানোর পর এবার ফুলহ্যাম বেশ আত্মবিশ্বাসী যে তারা প্রিমিয়ার লীগে টিকে থাকতে পারবে।

পশ্চিম লন্ডনের এই ক্লাবটি এবারের ট্রান্সফার উইন্ডোতে বেশ কিছু ইতিবাচক ও আশা-জাগানীয়া সাইনিংও করিয়েছে, যদিও তারা দুই একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে হারিয়েছেনও বটে। তাদের নতুন সাইনিং ও সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মিডফিল্ডার আন্দ্রেয়াস পেরেরা চাইবেন তার নতুন জার্সিতে একটি ইতিবাচক সূচনা করতে। তবে, তাদের সামনে অপেক্ষা করছে লিভারপুলের মত একটি দানবীয় পরীক্ষা।

পড়ুন:  নটিংহ্যাম ফরেস্ট বনাম এস্টন ভিলাঃ স্টিভ কুপারের জন্য কি এটিই শেষ সুযোগ?

প্রেডিকশন (Prediction)

ইংলিশ টপ ফ্লাইটে ফুলহ্যামের আগমণ এখন খুবই সাধারণ একটি ব্যাপারে পরিণত হয়েছে। যদি আমরা গত কয়েক বছরের দিকে তাকাই, তাহলে দেখতে পাব যে তারা রেলিগেটেড হওয়ার মানেই হল এই যে, এক মৌসুম পর আমরা তাদেরকে আবারো প্রিমিয়ার লীগে দেখতে পাব।

তবে, এমনটিই মনে হচ্ছে যে, এবারের মৌসুমের প্রথম অগ্নি পরীক্ষাটি তাদের জন্য একটু বেশিই জোড়ালো হতে যাচ্ছে। আমরা মনে করি, এই ম্যাচটিতে লিভারপুল শুধু জয়লাভই করবে না, বরং বেশ কিছু গোল করতেও সক্ষম হবে।

লিভারপুল ৪ – ১ ফুলহ্যাম

২.৫ গোলের উর্ধ্বে

লিভারপুল -২ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

Share.
Leave A Reply