আর্সেনাল (Arsenal)

আর্সেনালই হল এমন একটি দল যাদেরকে হারানোটা প্রিমিয়ার লীগের সকল দলের জন্যই এখন একটি চ্যালেঞ্জ, কারণ গানারস’রা খুবই বিচক্ষণতা এবং আত্মবিশ্বাসের সাথে খেলে তাদের মৌসুমের প্রথম তিনটি ম্যাচ বেশ সহজেই জিতে নিয়েছে। তাদের সর্বশেষ ম্যাচে ভাইটালিটি স্টেডিয়ামে এএফসি বোর্নমাউথকে ৩-০ গোলে হারানোর পর এখন আর্সেনালই প্রিমিয়ার লীগে এমন একমাত্র দল, যারা এখন পর্যন্ত সবকটি ম্যাচই জিতে নিয়েছে।

গানারস’দের জন্য একটি মৌসুমে এমন ভালো শুরুর দৃষ্টান্ত পেতে হলে আমাদের ফিরে যেতে হবে ২০০৪ সালে। সেবারই শেষবারের মত তারা এত ইতিবাচক একটি শুরু করেছিল তাদের মৌসুমের। তারা সেই মৌসুমটিতে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করতে সক্ষম হয়েছিল। অনেকেই তাই এবারও মনে করছেন যে, প্রিমিয়ার লীগের রানার্স আপ হওয়ার দৌড়ে তারাই এখন অনেকটা ফেভারিট হিসেবে আবির্ভূত হচ্ছে।

আর্সেনালের নতুন সাইনিং ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস তাদেরকে আক্রমণভাগে একটি নতুন দিশা প্রদান করতে পেরেছেন। আবার অন্যদিকে, গত কয়েক মৌসুম লোনে বাইরে থাকা উইলিয়াম স্যালিবা এবার গানারস’দের প্রথম একাদশে সুযোগ পেয়েই তার ক্ষমতার প্রমাণ দিয়েছেন, যার ফলে তাদের রক্ষণভাগও হয়েছে আগের চেয়ে মজবুত। তিন ম্যাচের মধ্যে দু’টিতেই ক্লিন শিট রাখার পর এবার মিকেল আর্তেতা আবারও চাইবেন যেন তার দল ফুলহ্যামের বিরুদ্ধে একটি জয়ও তুলে নিতে পারে, আবার যেন একটি ক্লিন শিটও রাখতে পারে।

 

ফুলহ্যাম (Fulham)

মার্কো সিলভা’র নিউলি প্রমোটেড ফুলহ্যাম দল এবারের প্রিমিয়ার লীগের সারপ্রাইজ প্যাকেজ হিসেবে আবির্ভাব করেছে, কারণ এখন পর্যন্ত তারা প্রিমিয়ার লীগের ২০২২-২৩ মৌসুমে একটি ম্যাচও হারেনি।

মৌসুমের প্রথম ম্যাচে নিজ মাঠ ক্রেভেন কটেজে গত মৌসুমের প্রিমিয়ার লীগ রানার্স আপ লিভারপুলের সাথে ২-২ গোলে ড্র করার পরই তারা এই দূর্দান্ত আত্মবিশ্বাস খুঁজে পেয়েছেন বলে ধারণা করা যাচ্ছে। তারপর তারা ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স এর বিপক্ষে খেলে মলিনিউ স্টেডিয়াম থেকে একটি পয়েন্ট নিয়ে ঘরে ফিরতে সক্ষম হোন। সেই ম্যাচটিতে অবশ্য তারা কিছুটা দুর্ভাগ্যবশতই পুরো তিনটি পয়েন্ট হাসিল করতে ব্যর্থ হোন, কারণ আলেকজান্ডার মিত্রোভিচ সেখানে একটি পেনাল্টি মিস করেন।

পড়ুন:  ম্যানচেস্টার সিটি বনাম এভারটন রিপোর্ট

ব্রেন্টফোর্ডের বিরুদ্ধে তাদের সর্বশেষ ম্যাচে অবশ্য কটেজার’রা তাদের মৌসুমের প্রথম জয়টি তুলে নিতে সক্ষম হোন। ম্যাচটি তারা ঘরের মাঠে ৩-২ গোলে জিতে নেয়। আলেকজান্ডার মিত্রোভিচ এর করা ৯০ মিনিটের গোলটি দুই দলের মধ্যে পার্থক্য গড়ে দেয়, এবং টাচলাইনে আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে ওঠেন কোচ মার্কো সিলভা।

ফুলহ্যাম তাদের পরবর্তী ম্যাচেও বেশ খানিকটা আত্মবিশ্বাস নিয়েই প্রবেশ করবে, তবে আরো বেশি সাবলীল একটি আর্সেনাল দলের সামনে তারা টিকতে পারবেন কি না তাই এখন দেখার বিষয়।

 

প্রেডিকশন (Prediction)

এ ব্যাপারে কোনই সন্দেহ নেই যে ফুলহ্যাম সবাইকে হতবাক করে দিয়ে তাদের মৌসুমের একটি শুভ সূচনা করেছে। তবে আর্সেনালের সাম্প্রতিক দূর্দান্ত ফর্মের সামনে তারা মুখ থুবড়ে পড়বে বলেই আমরা মনে করছি।

আর্সেনাল ৩ – ০ ফুলহ্যাম

২.৫ গোলের উর্ধ্বে

আর্সেনাল -১.৫০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

Share.
Leave A Reply