ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স (Wolverhampton Wanderers)

    ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স তাদের মৌসুমের সূচনা করেছে একটি হতাশাজনক ভঙিমায়। তাদের সিজনের প্রথম দুই ম্যাচে জয়ের দেখা না পাওয়ার পর টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর বিরুদ্ধে খেলতে নামার সময় তাদের নিকট হতে কেউই তেমন কিছু প্রত্যাশা রাখেনি।

    যদিও ম্যাচটিতে টটেনহ্যাম হটস্পার্স একটি একঘেয়ে পারফর্মেন্সই উপহার দিতে পেরেছিল, তবে ওলভসও একঘেয়েমির দিক দিয়ে তাদের চেয়ে কোন অংশে কম ছিল না। স্বাগতিক স্পার্সকে কোন রকম চিন্তায়ই ফেলতে পারেনি তারা। তবে, ম্যাচটি থেকে তাদের একমাত্র প্রাপ্তিই ছিল তাদের নতুন সাইনিং ম্যাথিয়াস নুনেজ এর দূর্দান্ত ডেব্যু।

    ইংল্যান্ড অধিনায়ক হ্যারি কেইন এর স্বভাবসুলভ একটি হেডেড গোলই যথেষ্ট ছিল ওলভসকে হারানোর জন্য, যদিও ম্যাচজুড়ে দুই দলের পারফর্মেন্সই ছিল গড়পড়তা। কিন্তু, খারাপ পারফর্মেন্স এর পরও জয় তুলে নেওয়াটাই হল ভালো দলের লক্ষণ, এবং ইংলিশ সুপারস্টার কেইনের হাত ধরে তাই করতে পেরেছিলেন স্পার্স কোচ এন্তোনিও কন্তে।

    এরপর ওলভস তাদের ঘরের মাঠ মলিনিউতে আমন্ত্রণ জানাবে ম্যাগপাইদেরকে বা নিউক্যাসেল ইউনাইটেডকে। কাগজে কলমে এটি একটি ব্লকবাস্টার ম্যাচই হতে যাচ্ছে।

     

    নিউক্যাসেল ইউনাইটেড (Newcastle United)

    গত উইকেন্ডে আমরা নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের ক্রমেই একটি সুপার পাওয়ার হয়ে ওঠার কথা বলেছিলাম, এবং যদিও সেবার তারা নিজেদের মাঠেই ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি’র বিরুদ্ধে আন্ডারডগ ছিল, তবুও তারা নিজেদের শক্তির প্রমাণ দিয়েছিল, এবং সিটিকে বিপদে ফেলতেও সক্ষম হয়েছিল।

    এডি হাও এর শিষ্যরা একদম গরম তেলে ভাজা মাছের মতই কুড়মুড়ে এবং সুস্বাদু। তারা বর্তমানে যেমন একের পর এক দূর্দান্ত পারফর্মেন্স উপহার দিয়েই চলেছে, তাতে তাদেরকে ইউরোপীয় স্পটগুলোর জন্য ফেভারিট না মানলে বিশাল বড় একটি বোকামি হবে।

    যদিও খেলার শুরুতে তারা এক গোলে পিছিয়ে পড়ে, তবুও অনবদ্য একটি অ্যাটাকিং ডিসপ্লে এর উপর ভর করে ম্যাগপাইরা খেলার এক পর্যায়ে ম্যানচেস্টার সিটি’র বিরুদ্ধে ৩-১ গোলে এগিয়ে যায়।

    পড়ুন:  এস্টন ভিলা vs বার্নলির পূর্ব দর্শন

    যদিও চমৎকার সেই ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ড্র হয়ে যায়, তবুও নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের অনবদ্য পারফর্মেন্স ও ভয়ানক আক্রমণভাগ তাদের প্রতিপক্ষের স্মৃতিতে অনেকদিন ধরে গেঁথে থাকবে।

    তাদের পরবর্তী ম্যাচটি খেলতে তারা মিডল্যান্ডস এর দিকে রওনা হবে, এবং কানায় কানায় ভরা একটি মলিনিউ স্টেডিয়ামে ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স এর বিরুদ্ধেও ঠিক তেমনি জোড়ালো একটি পারফর্মেন্স প্রদান করার চেষ্টা যে তারা করবে, সে ব্যাপারে কোনই সন্দেহ নেই।

     

    প্রেডিকশন (Prediction)

    বেশ কিছু মাস ধরেই ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স এর জন্য একটি বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে গোলস্কোরিং। তাদের অল-পর্তুগিজ ফ্রন্ট সিক্স তাদের সর্বশেষ ম্যাচেও ব্রুনো লাজকে একটিও গোল এনে দিতে পারেনি। অন্যদিকে, হাই-ফ্লায়িং নিউক্যাসেল ইউনাইটেড যেন গোল করা থামাতেই পারছে না। বর্তমান ফর্ম ও দক্ষতার বিচারে তাই আমরা এই ম্যাচটিতে নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের একটি সহজ জয়ই আশা করছি।

    ওলভারহ্যাম্পটন ওয়ান্ডারার্স ১ – ৩ নিউক্যাসেল ইউনাইটেড

    ২.৫ গোলের উর্ধ্বে

    নিউক্যাসেল ইউনাইটেড – ১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

    Share.
    Leave A Reply