আর্সেনাল (Arsenal)

    গত শনিবার আর্সেনালকে একটি জয় হাসিল করার জন্য বেশ খাটতে হয়েছিল, যখন তারা এমিরেটস স্টেডিয়ামে ফুলহ্যামের মুখোমুখি হয়েছিল। খেলাটিতে এক গোলে পিছিয়ে পড়েও আর্সেনাল কামব্যাক করে, এবং পুরো তিন পয়েন্ট নিজেদের নামে করে নিয়েই মাঠ ছাড়ে।

    গানারস’রা সেই ম্যাচটিতে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস নিয়েই প্রবেশ করেছিল, এবং সকলেই প্রত্যাশা করেছিল যে, তারা তাদের লন্ডন রাইভাল ফুলহ্যামকে খুব সহজেই হারিয়ে দিতে পারবে। ম্যাচটির শুরু থেকেই মিকেল আর্তেতা’র শিষ্যরা নিয়ন্ত্রণে ছিল, কিন্তু গ্যাব্রিয়েল ম্যাগালহেইস এর মনযোগে খানিকক্ষণের ঘাটতিকে কাজে লাগিয়ে ফুলহ্যাম স্ট্রাইকার আলেকজান্ডার মিত্রোভিচ দ্বিতীয়ার্ধে একটি ঠান্ডা মাথার ফিনিশের মধ্য দিয়ে তার দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন।

    তবে, কিছুক্ষণের মধ্যেই আর্সেনালের অধিনায়ক মার্টিন ওডেগার্ড খেলায় সমতা আনেন। তবে, সেক্ষেত্রে ভাগ্য তার এবং আর্সেনালের সাথ দিয়েছে, কারণ ওডেগার্ড এর করা শটটি কেবলমাত্র একটি ডিফ্লেকশন এর দরুণই বার্নড লেনোকে পরাস্ত করতে সক্ষম হয়। এরপর আর্সেনালের ভিলেইনই আর্সেনালের হিরোতে পরিণত হোন, কারণ ডি বক্সের মধ্যে সবার আগে প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন করে সেই গ্যাব্রিয়েল ম্যাগালহেইসই আর্সেনালের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন, যার মাধ্যমে গানারস’রা একটি অসাধারণ কামব্যাক সম্পন্ন করে।

    আমরা আমাদের সিজন প্রেডিকশনে বলেছিলাম যে, আর্সেনাল এবার প্রিমিয়ার লীগ শিরোপা জেতার লড়াইয়ে সামিল থাকবে। এবং বর্তমানে প্রিমিয়ার লীগ টেবিলটি নিরক্ষণ করলেই দেখা যায় যে, আর্সেনাল ৪ ম্যাচে ৪টি জয় নিয়ে লীগ টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে। তারাই প্রিমিয়ার লীগের একমাত্র দল যারা নিজেদের সবকটি ম্যাচেই জয় পেয়েছে। আপনি সেটিকে একধরণের ইঙ্গিত হিসেবে দেখলে দেখতেও পারেন, আবার সেটিকে এড়িয়ে যেতে পারেন। সেটি আপনার বিষয়। তবে, মিকেল আর্তেতা এবং আর্সেনাল অবশ্যই চাইবেন যেন আগামী ম্যাচে স্টিভেন জেরার্ডের এস্টন ভিলা’র বিরুদ্ধেও তাদের জয়ের ধারাটি বজায় থাকে।

     

    এস্টন ভিলা (Aston Villa)

    আরেকটি আশ্চর্যজনক ও হতাশাজনক হারের মধ্য দিয়ে এস্টন ভিলা ২০২২-২৩ মৌসুমে তাদের শোচনীয় সূচনাটিকে আরো মর্মান্তিক করে তুলেছে। সকলেই ভেবেছিল যে, এস্টন ভিলা নিজেদের মাঠ ভিলা পার্কে আরেক স্ট্রাগলিং ক্লাব ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে একটি জয় তুলে নিতে পারবে। তবে, তাদের জন্য হিতে বিপরীতই হয়েছে, কারণ ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড তাদেরকে হারিয়ে প্রিমিয়ার লীগ ইতিহাসে নিজেদের ১০০০তম গোলটি হাসিল করে নেয়, এবং ১-০ গোলের একটি শুভ জয় তুলে নেয়। সেটি ছিল ভিলেইনদের বিরুদ্ধে হ্যামার্সদের প্রিমিয়ার লীগে একটানা পঞ্চম জয়। এই ম্যাচের মাধ্যমেই ডেভিড ময়েসের দল এবারের মৌসুমে তাদের পয়েন্টের খাতাটি খোলে।

    পড়ুন:  ম্যানচেস্টার সিটি বনাম বার্নলি প্রিভিউ

    এবারের মৌসুমে এস্টন ভিলার মূল সমস্যাই হল তাদের আক্রমণভাগ, কারণ এ পর্যন্ত তারা মাত্র ৩টি গোল করতে সক্ষম হয়েছে। এর ফলে তারা এই মৌসুমের সবচেয়ে কমসংখ্যক গোল করা দলগুলির মধ্যে একটিতে পরিণত হয়েছে। তাদের জন্য পরবর্তী চ্যালেঞ্জটি আরো কঠিন হতে যাচ্ছে, কারণ এরপর তারা এমিরেটস স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে বর্তমান প্রিমিয়ার লীগ লিডার আর্সেনালের।

     

    প্রেডিকশন (Prediction)

    এস্টন ভিলা’র নিকট একটি শক্তিশালী মূল একাদশ থাকলেও তারা একদমই কোন ছাপ রাখতে পারছেন না। দলের মধ্যে অন্তঃকোন্দল এবং রেশারেশির কথাও শোনা যাচ্ছে। এমতাবস্থায়, যখন স্টিভেন জেরার্ডের জন্য পরিস্থিতিটি “ডু অর ডাই” এর দিকেই যাচ্ছে, তখন তাদের কিছু পয়েন্ট খুব বেশি করেই দরকার। কিন্তু, আর্সেনাল এখন যেমন ফর্মে রয়েছে, তাতে এস্টন ভিলা আরো শোচনীয় পরিস্থিতিতে পড়তে যাচ্ছে বলেই আমাদের ধারণা।

    আর্সেনাল ২ – ০ এস্টন ভিলা

    ১.৫ গোলের উর্ধ্বে

    আর্সেনাল -১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

    Share.
    Leave A Reply