নিউক্যাসেল ইউনাইটেড (Newcastle United)

তাদের সর্বশেষ ম্যাচে এনফিল্ডে লিভারপুলের বিরুদ্ধে সবকটি পয়েন্ট অর্জন করতে না পারায় নিউক্যাসেল ইউনাইটেড কিছুটা হলেও হতাশ হবে। ম্যাগপাইদের নতুন স্ট্রাইকার আলেকজান্ডার ইসাক একটি অপ্রতিরোধ্য শট মেরে লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান গোলকিপার এলিসনকে পরাস্ত করেন। এরপর তিনি আবারও লিভেরপুলের জালে বল জড়ালেও দ্বিতীয়ার্ধে লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রোবার্তো ফিরমিনো ম্যাচে সমতা ফেরান। 

কিন্তু, ম্যাচটির নাটকীয়তা তখনো অনেকটাই বাঁকি। বেঞ্চ থেকে খেলতে নামা লিভারপুলের নতুন সাইনিং ফ্যাবিও কারভালহো ম্যাচের ৯৮ মিনিটের মাথায় একটি কর্নার কিক থেকে আসা বলে খেলার সর্বশেষ কিকটির মাধ্যমে লিভারপুলের পক্ষে জয়সূচক গোলটি করে বসেন। বিনিময়ে ভেঙে যায় লাখ লাখ ম্যাগপাইস সমর্থকদের হৃদয়।

আগামী শনিবারে যখন ম্যাগপাইস’রা সেইন্ট জেমস’স পার্কে ক্রিস্টাল প্যালেসের মুখোমুখি হবে, তখন জয় ছাড়া তাদের মাথায় আর কিছুই জায়গা করে নিতে পারবে না। মৌসুম শেষে ইউরোপীয় কোন প্রতিযোগিতায় জায়গা করে নিতে হলে এ ধরণের ম্যাচে যে এডি হাও এর শিষ্যদেরকে জয় হাসিল করতেই হবে।

 

ক্রিস্টাল প্যালেস (Crystal Palace)

প্যাট্রিক ভিয়েরার অধীনে ক্রিস্টাল প্যালেস নিজেদেরকে একটি শক্ত প্রতিপক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে পেরেছে। যুবা প্রতিভায় পরিপূর্ণ তাদের দলটি তাই প্রিমিয়ার লীগে এনেছে এক নতুন আবহ, এক নতুনের ছোঁয়া।

যদিও তাদের এই পরিবর্তন খুবই প্রশংসনীয়, কিন্তু এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে আরো কিছুটা সময় তাদের প্রয়োজন। তাদের রক্ষণভাগ বেশ শক্ত হলেও খুব একটা ভালো ব্যাক আপ তাদের নিকট নেই, আবার ম্যাচের শেষের দিকে গোল হজম করা এবং লিড খোয়ানোর একটি বাজে অভ্যাসও তাদের তৈরি হচ্ছে, যা প্যাট্রিক ভিয়েরাকে মোটেও আনন্দিত করবে না।

তাদের সর্বশেষ ম্যাচে তারা তাদের লন্ডন প্রতিবেশী ব্রেন্টফোর্ডকে সেলহাস্ট পার্কে আমন্ত্রণ জানায়। থমাস ফ্র‍্যাংক এর শিষ্যদের বিপক্ষে সেটি ছিল ক্রিস্টাল প্যালেসের জন্য একটি মোক্ষম পরীক্ষা, কারণ এর আগে যখনই বিস’রা সেলহাস্ট পার্কে এসেছে, তখনই স্বাগতিকদের জন্য কোন না কোন সমস্যার সৃষ্টি করেছেই করেছে।

পড়ুন:  যেসকল কারণে আমরা মনে করি আর্সেনাল এবার প্রিমিয়ার লীগ শিরোপা জিতবে!

ম্যাচের ৫৫ মিনিটের মাথায় উইল্ফ্রিড জাহা’র করা গোলের উপর ভর করে ক্রিস্টাল প্যালেস এগিয়ে যায়, কিন্তু খেলার ৮৮ মিনিটের মাথায় ব্রেন্টফোর্ডের ইয়োয়ান উইসা খেলায় সমতা ফিরিয়ে আনেন, এবং ঘরের মাঠে পূর্ণ তিন পয়েন্ট হাসিল করা থেকে ক্রিস্টাল প্যালেসকে রুখে দেন।

 

প্রেডিকশন (Prediction)

তাদের দলের বহু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়েরা ইঞ্জুরির কারণে মাঠের বাইরে থাকা সত্ত্বেও নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের নিকট একটি প্রতিযোগিতামূলক একাদশ উপস্থিত রয়েছে। অন্যদিকে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পর থেকে প্রতিটি ম্যাচেই একটির বেশি গোল করতে হিমসিম খেয়েছে থমাস ফ্র‍্যাংক এর শিষ্যরা। তাই, ম্যাগপাইস’দের নতুন ফরোয়ার্ড আলেকজান্ডার ইসাক এর উপর ভরসা রেখে আমরা নিউক্যাসেল ইউনাইটেডকেই এই ম্যাচটিতে এগিয়ে রাখছি।

নিউক্যাসেল ইউনাইটেড ২ – ১ ব্রেন্টফোর্ড

১.৫ গোলের উর্ধ্বে

নিউক্যাসেল ইউনাইটেড +১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

Share.

Leave A Reply