ফুলহ্যাম (Fulham)

ক্রেভেন কটেজের সৈনিকরা এবার প্রিমিয়ার লীগে শুধুমাত্র দলের কোঠা পূরণ করতে বা শুধুই অংশগ্রহণের খাতিরে যোগ দেয়নি সেটি ইতিমধ্যে স্পষ্টভাবে প্রমাণিত করেছে তাদের একের পর এক ভালো পারফর্মেন্স।

যে কেউ যেকোন দৃষ্টিকোণ থেকে দেখলেই বুঝতে পারবে যে, হেড কোচ মার্কো সিলভা দলটির মধ্যে একটি অসামান্য আত্মবিশ্বাস এবং ট্যাকটিকাল সচেতনতা ঢুকিয়ে দিয়েছেন, যা তাদের পারফর্মেন্স লেভেলকে আরেক ধাপ উপরে নিয়ে গিয়েছে।

এবারের মৌসুমে এখন পর্যন্ত ফুলহ্যামের সার্বিয়ান স্ট্রাইকার আলেকজান্ডার মিত্রোভিচ চমৎকার ফর্মে রয়েছেন। যারা তার সামনে আসছে, তাদেরকেই তিনি পরাস্ত করতে সক্ষম হচ্ছেন। ব্রাইটন এন্ড হোভ এলবিয়ন এর বিরুদ্ধে তার সর্বশেষ গোলটির পর প্রিমিয়ার লীগে এখন তার ঝুলিতে রয়েছে মোট ৫টি গোল। ফুলহ্যামের হয়ে ১৮০টি ম্যাচ খেলে তিনি সর্বমোট ১০১টি গোল করতে সমর্থ্য হয়েছেন। দলটিতে তার প্রভাব অপরিসীম এবং অপরিহার্য। ফুলহ্যামকে যদি প্রিমিয়ার লীগে টিকিয়ে রাখতে হয়, তাহলে আলেকজান্ডার মিত্রোভিচকে সারা মৌসুমজুড়েই এমন ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শন করতে হবে।

এরপরের ম্যাচটি ফুলহ্যাম আবারও তাদের ঘরের মাঠ ক্রেভেন কটেজেই খেলবে, তবে এবার তাদের প্রতিপক্ষ হল লন্ডনে তাদেরই আরেক প্রতিবেশী টটেনহ্যাম হটস্পার্স, যারা কি না প্রিমিয়ার লীগে নিজেরাও বেশ সুন্দর একটি সময় পার করছে। যদিও তারা তাদের আরেক প্রতিবেশী ব্রেন্টফোর্ড এর বিরুদ্ধে অনেক কষ্ট করে হলেও তিনটি পয়েন্ট অর্জন করতে পেরেছিল, তবুও এটি বলাই বাহুল্য যে, এবার মার্কো সিলভা’র সৈন্যদের সামনে ব্রেন্টফোর্ডের চেয়ে অনেক বড় পরীক্ষাই অপেক্ষা করছে।

 

টটেনহ্যাম হটস্পার্স (Tottenham Hotspurs)

যদিও এন্তোনিও কন্তে’র অধীনে এবারের মৌসুমে টটেনহ্যাম হটস্পার্স এখনও অপরাজিত রয়েছে, তারপরও তাদের পারফর্মেন্স এর নমুনা দেখে অনেকেই তাদের যোগ্যতা সম্পর্কে প্রশ্ন তুলেছেন। এমন ধীরগতির এবং রক্ষণশীল খেলা দিয়ে কি তারা তাদের জয়ের ধারা বজায় রাখতে পারবে?

প্রিমিয়ার লীগ টেবিলের সিড়ি বেয়ে ওঠার পথে তাদের সর্বশেষ বাঁধা ছিল ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড। লন্ডনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে এই শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

পড়ুন:  পরের সিজন থেকে এফএ কাপের পরিবর্তন

যদি হ্যারি কেইন এর চাপের মুখে করা ওয়েস্ট হ্যাম ডিফেন্ডার থিলো কে’রার এর একটি আত্মঘাতী গোলের উপর ভর করে স্পার্স ম্যাচটিতে একটি ওয়েল-ডিজার্ভড লিড নেয়, তবুও হ্যামার্সরা মনক্ষুন্ন না হয়ে একের পর এক আক্রমণ করেই যায়। মিকাইল এন্তোনিও এর দূর্দান্ত একটি পাস থেকে থমাস সুচেক এর করা গোলটির মাধ্যমে তারা ম্যাচে সমতা পুনরুদ্ধার করে। ফলে, এন্তোনিও কন্তে পর পর দুই ম্যাচে টানা জয় ও ক্লিন শিট অর্জন করার পথে অসফল হোন।

তাদের পরবর্তী ম্যাচে টটেনহ্যাম হটস্পার্স খুবই অল্প পথ পাড়ি দিয়ে যাবে পশ্চিম লন্ডনে, যেখানে তাদের জন্য একটি বিশাল পরীক্ষা নিয়ে অপেক্ষা করছে একটি আত্মবিশ্বাসী ফুলহ্যাম দল।

 

প্রেডিকশন (Prediction)

এন্তোনিও কন্তে হচ্ছেন বিশ্বের সবচেয়ে জ্ঞানী এবং ট্যাকটিকাল ফুটবল ম্যানেজারদের মধ্যে একজন। তিনি একই রকম পন্থা অবলম্বন করে চেলসিকেও লীগ শিরোপা জিতিয়েছিলেন। তাই, টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর রক্ষণাত্মক ক্রীড়াকৌশল দেখে তাদেরকে ছোট করে ভাবার কিছুই নেই। গোল করার জন্য যথেষ্ট অস্ত্র ও গোলাবারুদও তাদের নিকট রয়েছে। তাই, আমরা মনে করি যে, ফুলহ্যামকে কাউন্টার অ্যাটাক এবং সেট পিস পরিস্থিতি থেকে কাবু করে ফেলতে পারবে টটেনহ্যাম হটস্পার্স, এবং ফলস্বরূপ তারা ম্যাচটিও জিতে নিতে পারবে বলেই আমরা ধারণা করছি।

ফুলহ্যাম ১ – ৩ টটেনহ্যাম হটস্পার্স

১.৫ গোলের উর্ধ্বে

টটেনহ্যাম হটস্পার্স -১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

Share.
Leave A Reply