এন্তোনিও কন্তে’র টটেনহ্যাম হটস্পার্স তাদের চ্যাম্পিয়নস লীগ মৌসুমটির সূচনা করতে যাচ্ছে নিজেদের মাঠ টটেনহ্যাম হটস্পার্স স্টেডিয়ামে, একটি শক্তিশালী ও উচ্চাশাসম্পন্ন মার্সেই দলের বিপক্ষে।

নর্থ লন্ডনের এই ঐতিহ্যবাহী ও প্রখ্যাত ক্লাবটি তাদের ৬ষ্ঠ চ্যাম্পিয়নস লীগ মৌসুম শুরু করতে যাচ্ছে, এবং শক্তিমত্তার বিচারে এমনটিই মনে হচ্ছে যে, গ্রুপ ডি’তে শীর্ষ স্থানটি অর্জনের জন্য তারাই ফেভারিট।

তবে, তাদের সেই স্বপ্নে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারে ফ্রেঞ্চ জায়ান্টস মার্সেই। এই ম্যাচটিতে প্রবেশ করার পূর্বে তারা আত্মবিশ্বাসের চরম শিখরে অবস্থান করছে, এবং স্পার্সের সামনে উক্ত গ্রুপটিতে তারাই সবচেয়ে বড় প্রতিপক্ষ।

উভয় দলই নিজ নিজ লীগ ক্যাম্পেইনে বেশ জোরদার সূচনা করেছে, এবং উভয় দলই ডিফেন্স ও অ্যাটাকের মধ্যে সুন্দর ভারসাম্য বজায় রেখে খেলতে পছন্দ করে থাকে। তাই, এমনটিই ধারণা করা যাচ্ছে যে, আগামী বুধবার রাতে আমরা আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে ভরপুর একটি এন্ড-টু-এন্ড ম্যাচ দেখতে পাব।

ম্যাচটি আরবক দিক দিয়ে ঐতিহাসিক হতে যাচ্ছে, এবং সেটি হল যে, এই দুই দল এর আগে কখনোই একে অপরের বিরুদ্ধে মাঠে নামেনি, অর্থাৎ এবারই প্রথম তারা একে অন্যের মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। তাই এতটুকু নিঃসন্দেহে বলা যায় যে, নর্থ লন্ডনে এই দুই দলই তিন পয়েন্ট অর্জনের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে, এবং ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখার চেষ্টায় লিপ্ত থাকবে।

 

ফর্ম বিবরণীঃ টটেনহ্যাম হটস্পার্স (Form Guide: Tottenham Hotspurs)

এবারের মৌসুমে এখন পর্যন্ত প্রিমিয়ার লীগে অপরাজিত রয়েছে এমন মাত্র দুইটি দলের মধ্যে একটি হল এন্তোনিও কন্তে’র টটেনহ্যাম হটস্পার্স। প্রিমিয়ার লীগ টেবিলের শীর্ষে থাকা তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্সেনালের থেকে তারা এখন মাত্র ১ পয়েন্ট পিছিয়ে।

গত মৌসুমের মাঝামাঝি ইতালিয়ান কোচ এন্তোনিও কন্তে স্পার্সের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই দলটির মানসিকতায় কিছু গুরুত্বপূর্ণ ইতিবাচক পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। এখন তারা কোন ম্যাচে খুব একটা ভালো খেলতে না পারলেও কোন না কোনভাবে সেই ম্যাচ থেকে তিনটি পয়েন্ট ছিনিয়ে আনতে পারে। চেলসি’র ম্যানেজার থাকাকালীনও এভাবে খেলেই একটি প্রিমিয়ার লীগ শিরোপা ঘরে তুলেছিলেন কন্তে।

পড়ুন:  লেস্টার সিটি বনাম ক্রিস্টাল প্যালেস (Leicester City Vs Crystal Palace) 11

গত উইকেন্ডে ফুলহ্যানকে ২-১ গোলে হারানোর মাধ্যমে টটেনহ্যাম এই ম্যাচটির জন্য সুন্দর একটি প্রস্তুতিও নিয়ে ফেলেছে। কষ্টার্জিত সেই জয়টিতেও ইংল্যান্ড অধিনায়ক হ্যারি কেইন স্কোরশিটে নিজের নামটি লিখাতে সক্ষম হোন।

এন্তোনিও কন্তে’র অধীনে বরাবরই হ্যারি কেইন খুব ভালো খেলে আসছেন, এবং চলমান মৌসুমে তিনি ইতিমধ্যে প্রিমিয়ার লীগে পাঁচ পাঁচটি গোল করে ফেলেছেন। ইউরোপের সবচেয়ে বড় ও ঐতিহ্যবাহী মহাদেশীয় টুর্নামেন্ট অর্থাৎ উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগে শুভ সূচনা করতে হলেও স্পার্সের হয়ে হ্যারি কেইনকেই গোল করার দায়িত্বটি সামলাতে হবে।

 

ফর্ম বিবরণীঃ মার্সেই (Form Guide: Marseille)

মার্সেই তাদের ফ্রেঞ্চ লিগা উন ক্যাম্পেইনের একটি অসাধারণ সূচনা করতে সক্ষম হয়েছে, এবং লীগটিতে তারা ছয়টি ম্যাচ খেলে এখনো পর্যন্ত অপরাজিত থাকার গৌরব অর্জন করেছে। সর্বমোট ১৬ পয়েন্ট নিয়ে তারা এখন পিএসজি’র সাথে সম্মিলিতভাবে লিগা উন টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে। গত উইকেন্ডে অ’জের এর বিপক্ষে ২-০ গোলের একটি সহজ জয় তুলে নেওয়ার পর লা ফসিন্স খ্যাত মার্সেই এখন টানা ৪টি ম্যাচে জয়লাভ করতে সক্ষম হয়েছে। সেই চার ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই তারা নিজেরা কমপক্ষে ২টি করে গোল করতে সমর্থ্য হয়েছে।

তারা এখন আত্মবিশ্বাসের চরম শিখরে অবস্থান করছে, এবং মার্সেই হেড কোচ ইগর টুডোর তাই আশা করবেন যে তার দল এই ম্যাচটি থেকে অন্তত এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারবে।

ম্যাচিটিতে একটি অতিরিক্ত চমক তৈরি করেছে এই ব্যাপারটি যে, বর্তমান মার্সেই দলটি প্রচুর সাবেক আর্সেনাল খেলোয়াড় দিয়ে ভর্তি, যার ফলে ম্যাচটি থেকে একটি নর্থ লন্ডন ডার্বি’র আভাসও পাওয়া যাচ্ছে। সেসকল খেলোয়াড়দের মধ্যে অন্যতম হলেন ম্যাটেও গুয়েন্ডোজি, এলেক্সিস স্যাঞ্চেজ, নুনো তাভারেজ, এবং সিড কলাসিনাচ, যারা কি না মার্সেই এর মূল একাদশে নিয়মিত খেলে থাকেন।

 

প্রেডিকশন (Prediction)

যেহেতু উভয় দলেরই সাম্প্রতিক ফর্ম বেশ দূর্দান্ত, সেহেতু এই দুই দলের মধ্য থেকে একটি জয়ী দল বেছে নেওয়া খুবই কষ্টসাধ্য একটি কাজ। এছাড়া, প্রতিপক্ষের উপর আঘাত হানার জন্য উভয় দলের নিকটই যথেষ্ট পরিমাণে হাতিয়ারও রয়েছে। উভয় দলের আক্রমণভাগে উপস্থিত খেলোয়াড়দের দিকে তাকালে এটিও ধারণা করা যায় যে, এই ম্যাচটিতে বেশ কিছু গোল হওয়ারও জোড়ালো সম্ভাবনা রয়েছে।

পড়ুন:  নিউক্যাসল বনাম ম্যান ইউনাইটেড: ঘনিষ্ঠ প্রতিদ্বন্দ্বীদের প্রতিহত করতে রেড ডেভিলস

প্রকৃতপক্ষে, এই ম্যাচটিতে একটি অঘটন ঘটার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে, কিন্তু তারপরও আমরা মনে করি যে, ম্যাচটি জেতার জন্য টটেনহ্যামই ফেভারিট, কারণ তাদের নিকট রয়েছে ঘরের মাঠে খেলতে পারার একটু বিশাল মানসিক সুবিধা। এছাড়া, তাদের ডাগ আউটে আছেন এমন এক ট্যাকটিকাল জাদুকর (এন্তোনিও কন্তে), যিনি কি না যেকোন কঠিন পরীক্ষাতেই গৌরবের সাথে উত্তীর্ণ হওয়ার সামর্থ্য রাখেন।

তবে, অনেকেই যেমনটি মনে করছেন এই ম্যাচটি তার চেয়ে অনেক বেশি প্রতিযোগিতাপূর্ণ হতে চলেছে বলেই আমরা মনে করি। তবে, আমাদের ধারণা বেশ কষ্ট করে হলেও টটেনহ্যাম হটস্পার্স এই ম্যাচটি থেকে সবকটি পয়েন্টই অর্জন করতে সক্ষম হবে, এবং তাদের ২০২২-২৩ চ্যাম্পিয়নস লীগ মৌসুমটির একটি শুভ সূচনা করতেও সমর্থ্য হবে।

টটেনহ্যাম হটস্পার্স ২ – ১ মার্সেই

২.৫ গোলের উর্ধ্বে

মার্সেই +১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

Share.
Leave A Reply