প্রেডিকশন (Prediction)

সাউথ্যাম্পটন ১ – ২ এভারটন

২.৫ গোলের উর্ধ্বে

এভারটন +১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

 

গুরুত্বপূর্ণ দিকসমূহ (Key Notes)

  • সাউথ্যাম্পটনের হয়ে তাদের ফরোয়ার্ড এডাম আর্মস্ট্রং প্রিমিয়ার লীগে এ পর্যন্ত যে তিনটি গোল করেছেন, তার মধ্যে থেকে ২টি গোলই তিনি করেছেন সেইন্ট মেরি’স স্টেডিয়ামে, যেটি হল সাউথ্যাম্পটন এর হোম গ্রাউন্ড। সেই দুইটি গোলের মধ্যে আবার একটি গোল এসেছে তাদের সর্বশেষ হোম ম্যাচে, চেলসি’র বিরুদ্ধে। ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে আর্মান্ডো ব্রোজা’র অনুরূপ কীর্তির পর থেকে সাউথ্যাম্পটনের কোন খেলোয়াড়ই পর পর দু’টি হোম ম্যাচে গোল করতে সক্ষম হোননি।
  • প্রিমিয়ার লীগে এবারের মৌসুমে এভারটন ফরোয়ার্ড দেমারাই গ্রে এর চেয়ে বেশি কোন খেলোয়াড়ই বল নিজে টেনে নিয়ে গিয়ে শট মারতে পারেননি (৯টি)। তবে, তিনি তার করা সর্বশেষ ২৩টি শটের কোনটির মাধ্যমেই তার দলকে কোন গোল এনে দিতে পারেননি। তার নিজের তৈরি করা এবং নিজের স্কোর করা সর্বশেষ গোলটি এসেছিল গত বছরের ডিসেম্বর মাসে, আর্সেনালের বিপক্ষে। ম্যাচটি অবশ্য এভারটন জিতে নিয়েছিল।
  • এভারটন এর নতুন সেন্টার ফরোয়ার্ড নিল মৌপায় তার নতুন দলের হয়ে গত ম্যাচউইকেই ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডের বিপক্ষে নিজের গোলের খাতাটি খুলেছেন। সেই গোলের মাধ্যমে তিনি প্রিমিয়ার লীগে নিজের সবচেয়ে বড় গোল খরাটি কাটিয়েছেন (১২ ম্যাচ)। প্রকৃতপক্ষে, গত বছরের ডিসেম্বর মাসের পর থেকে এই ফরাসী স্ট্রাইকার পর পর দুই ম্যাচে গোল করতে পারেননি। সর্বশেষ তিনি গত বছরের শেষের দিকে পর পর তিন ম্যাচে তিনটি গোল করেছিলেন।

 

ফর্ম বিবরণী (Form Guide)

সর্বশেষ ৫ ম্যাচে সাউথ্যাম্পটনঃ পরাজয় – পরাজয় – জয় – পরাজয় – জয়

সর্বশেষ ৫ ম্যাচে এভারটনঃ জয় – ড্র – ড্র – ড্র – ড্র

 

ম্যাচটি সম্পর্কিত কিছু তথ্য (Game Facts)

  • গত ফেব্রুয়ারিতে সেইন্টস’রা এভারটনকে ২-০ গোলে হারিয়েছিল। এবার অবশ্য মনে হচ্ছে যে, অক্টোবর ২০১৪ এর পর থেকে এবারই প্রথমবারের মত এভারটনকে পর পর দুটি ম্যাচে হারানোর সুযোগ পেয়েছে সাউথ্যাম্পটন।
  • এভারটন প্রিমিয়ার লীগে তাদের পরবর্তী প্রতিপক্ষ সেইন্টস’দের বিপক্ষে সেইন্ট মেরি’স স্টেডিয়ামে এখন পর্যন্ত ৯টি ম্যাচ খেলে ৭টিতেই রয়েছে জয়হীন (২টি জয়)। এর আগে সেইন্টস’দের বিপক্ষে সফরকালীন অবস্থায় সর্বমোট ২২টি ম্যাচ খেললেও এভারটন সমসংখ্যক গোল করতে পারেনি (৮টি জয়, ৮টি ড্র, এবং ৬টি পরাজয়)।
পড়ুন:  এভারটন বনাম টটেনহ্যাম: টফি স্পার্সের জন্য আরও সমস্যা সৃষ্টি করবে

 

যেসকল গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের উপর সবার নজর থাকবে (Key players to watch out for)

জেমস ওয়ার্ড-প্রাউস – সাউথ্যাম্পটন (James Ward-Prowse – Southampton)

সেইন্টস অধিনায়ক জেমস ওয়ার্ড-প্রাউস তার ক্রীড়ানৈপূণ্য প্রদর্শন করে অনেককেই তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। এছাড়া, দলটির জন্য একজন বিশেষজ্ঞ সেট পিস অপারেটর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন এই ইংলিশ জাদুকর। তার এসকল বৈশিষ্ট্যের কারণেই তাকে বিভিন্ন সময়ে ইংলিশ জাতীয় দলেও দেখা গিয়েছে।

 

এন্থোনি গর্ডন – এভারটন (Anthony Gordon – Everton)

বেশ অনেকদিন আগেই এভারটন একাডেমীর একজন সফল খেলোয়াড় হিসেবে মূল একাদশে জায়গা করে নিলেও এখন এসে তিনি সেটির পূর্ণ মর্যাদা বুঝতে পারছেন। আমরা মনে করি যে, এই যুবা ফরোয়ার্ড এই ম্যাচটিতে কমপক্ষে একটি গোল বা একটি এসিস্ট করতে সক্ষম হবেন।

Share.
Leave A Reply