প্রেডিকশন (Prediction)

ক্রিস্টাল প্যালেস ৩ – ১ লিডস ইউনাইটেড

২.৫ গোলের উর্ধ্বে

ক্রিস্টাল প্যালেস -১.০ (এশিয়ান হ্যান্ডিক্যাপ)

 

গুরুত্বপূর্ণ দিকসমূহ (Key notes)

  • তার সাবেক যেসব দলগুলির হয়ে তিনি প্রিমিয়ার লীগে খেলেছেন, এমন দলগুলির বিরুদ্ধে খেলা তার সর্বশেষ ৬টি ম্যাচে সর্বমোট ৪টি গোল করতে সক্ষম হয়েছেন লিডস ইউনাইটেডের স্ট্রাইকার প্যাট্রিক ব্যামফোর্ড। এর মধ্যে দুইটি গোল তিনি করেছেন ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে (বাঁকি দুইটি বার্নলি’র বিরুদ্ধে)। ক্রিস্টাল প্যালেসের সাবেক খেলোয়াড়দের মধ্যে গ্লেন মারি (৩) সবচেয়ে বেশি বার গোল করেছেন ঈগলস’দের বিপক্ষে। এছাড়া, ক্রিস্টাল প্যালেসের খেলা সর্বশেষ প্রিমিয়ার লীগ ম্যাচে তাদের আরেক সাবেক খেলোয়াড় কনোর গ্যালাঘার চেলসি’র হয়ে ম্যাচের একদম শেষ মুহূর্তে জয়সূচক গোলটি করেন। গত মৌসুমে গ্যালাঘার ঈগলস’দের হয়ে ৩৪টি ম্যাচ খেলেছিলেন।
  • শুধুমাত্র ড্যানিয়েল পডেন্স (৬৭%) এবারের মৌসুমে উইল্ফ্রিড জাহা’র (৫০%) চেয়ে তার দলের হয়ে অধিকতর শতাংশ গোল করেছেন। এখন পর্যন্ত এবারের মৌসুমে ক্রিস্টাল প্যালেসের করা ৮টি গোলের মধ্যে ৪টিই স্কোর করেছেন ইংলিশ উইংগার জাহা।

 

ফর্ম বিবরণী (সর্বশেষ ৫টি ম্যাচ) [Form Guide (Last 5 matches)]

ক্রিস্টাল প্যালেসঃ পরাজয় – ড্র – ড্র – পরাজয় – জয়

লিডস ইউনাইটেডঃ ড্র – পরাজয় – ড্র – পরাজয় – জয়

 

ম্যাচটি সম্পর্কিত কিছু তথ্য (Match Facts)

  • লিডস ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে খেলা তাদের সর্বশেষ ৩টি প্রিমিয়ার লীগ ম্যাচে ক্রিস্টাল প্যালেস কোন গোলই করতে পারেনি (১টি ড্র, ২টি পরাজয়)। তবে, সেই তিন ম্যাচের ঠিক আগের ম্যাচটিতে (২০২০ সালের নভেম্বর মাসে) তারা লিডসের জালে চার চার বার বল জড়াতে সক্ষম হয় (৪-১)।
  • প্রিমিয়ার লীগে ক্রিস্টাল প্যালেসের মাঠ সেলহাস্ট পার্কে খেলা তাদের সর্বশেষ ৬টি ম্যাচের একটিতেও জয়লাভ করতে পারেনি লিডস ইউনাইটেড (৩টি ড্র, ৩টি পরাজয়)। তবে, তার আগে ১৯৯৪ সাল থেকে শুরু করে ২০০৬ সাল পর্যন্ত লীগে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে লিলি হোয়াইটদের একটি তিন ম্যাচের জয়ের ধারা অব্যাহত ছিল।
পড়ুন:  এএফসি বোর্নমাউথ বনাম ব্রেন্টফোর্ডঃ ভাইটালিটি স্টেডিয়ামে সেয়ানে সেয়ানে টক্কর

 

যেসকল গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের উপর সবার নজর থাকবে (Key players to watch out for)

উইল্ফ্রিড জাহা – ক্রিস্টাল প্যালেস (Wilfried Zaha – Crystal Palace)

তার অসাধারণ গতি ও ড্রিবলিং দক্ষতার কারণে ‘বিগ উইল্ফ’ খ্যাত উইল্ফ্রিড জাহা যেকোন দলের বিরুদ্ধেই একটি হুমকির নাম। ইঞ্জুরি সমস্যায় জর্জরিত না হলে তার ক্যারিয়ার আজ অন্য পর্যায়েই থাকতো। সেই ইঞ্জুরি কাটিয়ে এই ম্যাচটিতে তিনি মাঠে নামলে আশা করাই যায় যে, তার নামটি স্কোরশিটে থাকবে।

 

রদ্রিগো মরেনো – লিডস ইউনাইটেড (Rodrigo Moreno – Leeds United)

এবারের প্রিমিয়ার লীগ মৌসুমে একটি উড়ন্ত সূচনা করার পর থেকে এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডের ধার অনেকটাই কমে গিয়েছে বলে মনে হয়েছে দলটির গত কয়েকটি ম্যাচে। তবে, একজন ফরোয়ার্ড হিসেবে রদ্রিগো’র নিকট সেসকল হাতিয়ারই রয়েছে, যেগুলির দ্বারা তিনি প্রিমিয়ার লীগের যেকোন দলকে বধ করতে পারবেন। ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে লিডসের জিততে হলে রদ্রিগো’র ফর্মে ফেরাটা খুব বেশি জরুরি।

Share.
Leave A Reply