প্রেডিকশন (Prediction)

সেনেগাল ২ – ২ নেদারল্যান্ডস

ভেন্যুঃ আল থুমামা স্টেডিয়াম

আফ্রিকান কাপ অব নেশনস এর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন সেনেগালই এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সাফল্য অর্জনকারী আফ্রিকান দেশ। ২০০২ সালের কোরিয়া/জাপান বিশ্বকাপে তারা কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত যাত্রা করেছিল। সেই কোয়ার্টার ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ তুরষ্ক যদি ৯৪ মিনিটে গিয়ে একটি গোল করে না বসতো, তাহলে তারা সেবার সেমি ফাইনালও খেলতো। 

অন্যদিকে, ইউরোপীয় দেশ নেদারল্যান্ডস তাদের সম্পূর্ণ ফুটবলীয় ইতিহাস জুড়েই একরকম “চোকার” উপাধি বইয়ে নিয়ে বেড়িয়েছে, এবং এখনও বেড়াচ্ছে। অনেকবার তারা শিরোপা জেতার কাছাকাছি গিয়েও জিততে পারেনি। ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে দারুণ দারুণ সব দল তারা উপহার দিলেও বিনিময়ে কোন শিরোপাই ঘরে তুলতে পারেনি, যা এবার তারা পরিবর্তন করতে চাইবে।

ফর্ম বিবরণীঃ সেনেগাল (Form Guide: Senegal)

এক বারের আফ্রিকান চ্যাম্পিয়ন সেনেগাল গত জানুয়ারিতে তাদের ইতিহাসের প্রথম শিরোপা জেতার পর এবার বিশ্বকাপে তাদের ছাপ রাখার চেষ্টা করবে। কাতারে তাদের প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডস এর বিপক্ষে মাঠে নামার আগে তাই তারা বেশ আত্মবিশ্বাসীই হবে। 

তাদের দলে এমন বেশ কিছু খেলোয়াড়ও রয়েছেন যারা কি না বিগত বেশ কিছু বছর ধরেই ইউরোপের বড় বড় লীগগুলিতে আফ্রিকার নাম উজ্জ্বল করে আসছেন। নেদারল্যান্ডস এর বিপক্ষে ম্যাচটির আগে তাদের ফর্মও বেশ চমৎকার, কারণ তাদের খেলা সর্বশেষ ৬টি ম্যাচের মধ্যে সেনেগাল হেরেছে মাত্র একটিতে (৩টি জয়, ২টি ড্র, ১টি পরাজয়)।

ফর্ম বিবরণীঃ নেদারল্যান্ডস (Form Guide: Netherlands)

অরানিয়া খ্যাত নেদারল্যান্ডস দল তাদের ইতিহাসে ৩ বার বিশ্বকাপের সেমি ফাইনাল খেলেছে, যার মধ্যে একবার তারা ফাইনালও খেলেছে। ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় স্পেনের বিপক্ষে সেই ফাইনালটিতে হারার পর ২০১৪ সালে ব্রাজিলের বিপক্ষে জিতে তারা ৩য় স্থান অধিকার করে। 

গত বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে ব্যর্থ হওয়ার পর থেকেই তাদের দলটি প্রচুর পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে গিয়েছে, এবং ফলস্বরূপ বহু যুবা খেলোয়াড়দেরকেও দলে ঢুকানো হয়েছে, যা তাদের ভীষণ কাজেও দিয়েছে। তাদের সাম্প্রতিক ফর্মই সেটির প্রমাণস্বরূপ। তাদের খেলা সর্বশেষ ৬টি ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে ডাচ’রা। এর মধ্যে তারা বেলজিয়াম, পোল্যান্ড এবং ওয়েলস এর মত দলকেও হারিয়েছে। অর্থাৎ, তাদের ফর্ম ও অভিজ্ঞতার বিচারে বলাই যায় যে, কাতারে আবারও ডাচ’রা বহুদূর পর্যন্ত যেতে পারে।

পড়ুন:  নিউকাসলের বনাম ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড প্রিভিউঃ

ম্যাচটিতে যা যা ঘটতে পারে (How the game could go)

ডাচ বাহিণীর শক্তিমত্তা ও ফর্ম যত ভালোই হোক না কেন, তেরাংগা লায়নস খ্যাত সেনেগালের নিকট রয়েছে অঢেল গতি এবং দম। এছাড়া, সেনেগালের বর্তমান কোচ আলিউ ছিসে’র ট্যাকটিকাল দক্ষতা ফুটবল বিশ্বে বেশ বিখ্যাত। এ ব্যাপারে কোনই সন্দেহ নেই যে আমরা একটি শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ এখানে দেখতে পাব, তবে আমরা মনে করি যে, এই ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত একটি ড্র’য়েই পরিণত হবে।

Share.

Leave A Reply