প্রেডিকশন (Prediction)

    ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড ১ – ২ ব্রেন্টফোর্ড

    গুরুত্বপূর্ণ দিকসমূহ (Key Notes)

    • হ্যামার্স খ্যাত ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড নিজেদের শেষ ম্যাচের পারফর্মেন্স নিয়ে মোটেও সন্তুষ্ট হবেন না, কেননা সেই ম্যাচটিতে তারা আর্সেনালের বিপক্ষে এক গোলে এগিয়ে গিয়েও এমিরেটস স্টেডিয়াম থেকে খালি হাতে ফিরেছে। প্রথমার্ধে পেনাল্টি স্পট থেকে ওয়েস্ট হ্যামকে এগিয়ে দেন সাঈদ বেনরাহমা। কিন্তু, তার দল দ্বিতীয়ার্ধে প্রচন্ড চাপের সম্মুখীন হয়, এবং সেই লিডটি ধরে রাখতে অক্ষম হয়।
    • ব্রেন্টফোর্ডও নিজ মাঠে টটেনহ্যাম হটস্পার্স এর বিপক্ষে একটি দুই গোলের লিড খোয়ানোর অপরাধে অপরাধী। এর পেছনে মূলত দায়ী ছিল তাদের দায়িত্বহীন এবং অদূরদর্শী ডিফেন্ডিং। ব্রেন্টফোর্ডের হয়ে ইয়ানেল্ট এবং আইভান টনি’র করা গোল দুইটির পর স্পার্সের হয়ে হ্যারি কেইন এবং পিয়ের এমিল হইবার্গ খেলায় সমতা আনেন।

    ফর্ম বিবরণী (সর্বশেষ ৫টি ম্যাচ) [Form Guide (Last 5 matches)]

    ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেডঃ পরাজয় – পরাজয় – পরাজয় – পরাজয় – জয়

    ব্রেন্টফোর্ডঃ ড্র – জয় – ড্র – ড্র – পরাজয়

    ম্যাচটি সম্পর্কিত কিছু তথ্য (Match Facts)

    • এই দুই দলের মধ্যকার সর্বশেষ দুইটি ডার্বি ম্যাচেই জয়লাভ করেছে ব্রেন্টফোর্ড। সর্বশেষ ম্যাচটিতে লন্ডনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ২-১ গোলের জয় পায় ব্রেন্টফোর্ড।
    • উভয় দলের জন্যই তাদের সর্বশেষ প্রিমিয়ার লীগ ম্যাচটি ছিল ডার্বি ম্যাচ, এবং দু’দলই সেই ম্যাচগুলিতে নিজেদের পারফর্মেন্স নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট হবে না। উভয় দলই তাই এখন একটি ভালো পারফর্মেন্স উপহার দিয়ে জয়ের ধারায় ফিরতে চাইবে।

    যেসকল গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের উপর সবার নজর থাকবে (Key players to watch out for)

    সাঈদ বেনরাহমা – ওয়েস্ট হ্যাম ইউনাইটেড (Said Benrahma – West Ham United)

    আলজেরিয়ান এই উইংগার বর্তমানে অনবদ্য ফর্ম পার করছেন। তার খেলা সর্বশেষ প্রিমিয়ার লীগ ম্যাচে তিনি আর্সেনালের বিপক্ষে পেনাল্টি স্পট থেকে গোল করেন, এবং পুরো ম্যাচ জুড়েই তিনি ছিলেন এক কথায় অনবদ্য ও হ্যামার্সদের সেরা খেলোয়াড়।

    পড়ুন:  বোর্নেমাউথ বনাম বার্নলি প্রিভিউ

    আইভান টনি – ব্রেন্টফোর্ড (Ivan Tonney – Brentford)

    দূর্দান্ত এই ইংলিশ স্ট্রাইকার প্রায় প্রতি ম্যাচেই গোল করে বার বার বুঝিয়ে দিচ্ছেন যে, তাকে বিশ্বকাপের দলে জায়গা না দিয়ে কত বড় ভুল করেছিল ইএফএ। যখন টনি ফর্মে থাকেন, তখন তাকে থামানোটা প্রায় অসম্ভবের কাছাকাছিই হয়ে যায়, তাই প্রিমিয়ার লীগের ডিফেন্ডাররা তার থেকে সাবধানতা বজায় রাখার চেষ্টাই করবে।

    Share.
    Leave A Reply