LASK vs Liverpool পূর্বালোচনা

গত সম্প্রতি লিভারপুলের খুব ভাল একটি সীজন ছিল যেখানে তারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ পর্যায়ে ছাড়িয়ে যাবার আগেই ইউরোপের দ্বিতীয় শ্রেণীর মুকাবলা, ইউরোপা লিগে যাত্রা শুরু করেছিলেন। বর্তমানে তারা 2015/16 সংস্করণের পর এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন।

 

লিভারপুল গত গ্রীষ্মকালে যথেষ্ট ব্যস্ত ছিল, বেশি বাজার বিক্রি খেলেই না যেমন বেশি মঞ্চে পরিবর্তিতে অনেক খেলার আগাম হয়েছে। বর্তমানে, তাদের পাশে নতুন দেখা দিতে পাচ্ছে উইলিয়াম এডো, ভিলি ওতেরয়োনালফি এইন্স্টেইন। ম্যানেজার জুরগেন ক্লপ খুব কর্মশালী এবং তার দলকে বিপর্যয়টা পরিষ্কার করে অন্যান্য শীর্ষ দলগুলির মধ্যে পুনরুথান দিয়ে তাকে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন।

 

 

লিভারপুল সীজনটি চেলসিতে শুরু করেছিল এক-এক রেডের অবিচ্ছেদ্য থাকা সঙ্গে। পরের খেলে তারা বূহামুথের বিপক্ষে ৩-১ জয় জড়িয়েছিলেন। খেলার শুরুতেই পিছার অপরিপাঠ হয়েছিল, কিন্তু লুইস দিয়াজ, মোহাম্মেদ সালাহ এবং ডিয়োগো জোটা এর গোলের সহায়তায় ২০১৯-২০ সংস্করণের পরও জয়লাভ করেছিলেন ইংরেজ লীগের চ্যাম্পিয়ন।

 

 

দারউইন নুনিয়েজ লিভারপুলকে অপর জয়ে প্রায় পাঁচটি ফাঁদ ভাঙ্গিয়ে তুললেন সেই নিউক্যাসল ম্যাচে। খেলাটির উপসংহারেও পরও বিদেশি রাজা ভান ভান করেছিলেন যাঁকে ভান ভান হতে দেখতেই চিরদিন থেকেই লীডস’ দ্রুত পালো দিলেন।

 

 

আইন্ট্রো বিলা, জয়ের উদ্যোগ ছাড়াই লিভারপুলকে আঘাত হিসাবে প্রথম বার সিজন হল উদাহরণস্বরূপ, এখানে দ্বিতীয় গোল জন্য পূর্ববিধ ষটকে ধরতে হয়েছিলেন সালাহ এবং বন্টভের পর আরেকটি গোল দিয়াজও জয়লাভে তাদের সাথে মিলেছিলেন। লিভারপুল শুক্রবার থেকে কিছু মাথামাচা খাওয়ার পরে ওয়ালসের বিপক্ষে আঘাতকারী তাড়ানিতেও ঘটেছিল, তবে তাঁরা খেলাটি উল্টো করে ফেলতে পারেনি আর খেলাটি ৩-১ জয় জিতেছিলেন। আবারও সালাহ মুলতবি গোল ছিলেন এবং তিন রণনীতি গোলও রেডসকে ধরতে সাহায্য করেছিলেন গাকপো, এন্ড্রু রবার্টসন এবং আরেকটি পূর্ববিধ ষটকে এই তাড়ানির জন্য।

পড়ুন:  Borussia Dortmund vs Newcastle প্রিভিউ

 

 

Austrian Bundesliga-তে তৃতীয় অবস্থানে অবস্থিত এলএসকেই একটি নম্র শুরু হয়েছিল এই তাড়াতাড়ি সীজনটি। তারা এই সীজনে তাদের খেলাগুলিতে শুধু একটি খেলায় হেরে যাওয়া পাঠ করেছেন এবং ঐ হেরেও তাদের প্রস্তুতি দেখানোর জন্য তিনি চট পাট এবং মেয়াদা আছে।

 

 

এই সংকলনে উইন্স্বকি মোস্তারকে হেরে ফেলার ওপরে ভয়ানক হারে ইউরোপা লিগ গ্রুপ মেয়াদানে পৌঁছানোর প্রয়াসে ভালো নৌকা গ্রহণ করতেই হতে হয়েছে এত কম সময়ে-জন্যে, যা পরও এই সংসকরণে তাঁদের পেলে বিচ্ছিদ্র বিমানযাত্রীদের একটি সুযোগ দিলো যা তাদের বিপক্ষে ভালভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

 

 

লিভারপুল এই সীজনে ইউরোপা লিগ জয় করার জন্য তা সমর্থন করেছে এবং আশ্চর্যজনক সাধীরিতায় এটি এই সীজনের প্রথম মিলন হবে। এর আগে এই প্রতিযোগিতা জয়লাভ করার জন্য তাঁর গোলগুছিয়েছেন ক্লপ যাঁরা নিয়েছিলেন এর সমস্ত প্রতিষ্ঠান সেটার যোগ্যতা।

 

 

বিশ্বকে লঞ্চ করার সময় ক্লপ, লিভারপুলকে শুধুমাত্র এই বার্তাটিতে জয় নয়, এর আগাম উপাদানটা হয়েছে পূর্বভাবে জানাম ভেল্যুতে দ্বন্দ্ব মধ্যে পার্থক্য।

 

 

লিভারপুল নির্দিষ্ট বরাদ্দকর্তা নয় একমাত্র গোলে চার খেলায

LASK 1-2 Liverpool

 

 

 

Share.
Leave A Reply