শেফিল্ড ইউনাইটেড বনাম লিভারপুল প্রিয়ু

প্রিমিয়ার লিগ (পিএল) ক্যাম্পেইনের শুরুটাও অনেক খারাপ থেকেছিল শেফিল্ড ইউনাইটেডের। তাদের প্রথম 13 ম্যাচের সর্বোচ্চ একটি জিত পেয়েছিল (ডি ২, ল ১০)। শেফিল্ড ইউনাইটেদ পুনর্জাগরণের জন্য একটি ম্যাচ হিসাবে নির্ধারিত বার্নলির বিপক্ষের ম্যাচের জন্য উজ্জ্বল হতে চাইতেছিলেন তারা। কিন্তু প্রতিস্থাপিত এই ম্যাচে শিশুগনদের নিক্কুচ্ছে দিয়ে শেফিল্ড ইউনাইটেদের মনে হচ্ছিল নীচের দিকে পতিত হবে তাদের একইসাথে বয়কট সমর্থকরা ম্যাচের বেশি ব্যাংক এবং পশ্চাদ্বীপর পর্যায়ে জগার করা একগুচ্ছের খাতায় এগিয়ে যেতে শেফিল্ড ইউনাইটেদ এখনও শুধুমাত্র একটি গোল সরাইয়েছে। তাদের প্রধানত ছোটখেলায় মিডওয়ীক অভিযানের বাংলাদেশীদের জন্য এটা উদ্বোধন হতে পারে, কেননা এই ম্যাচের পরবর্তী থেকে তারা গত চারটি পিএল ম্যাচে শ্রী তিন ভিজিটর জিতেছেন (ল ১)।

 

তাদের আপনাদের অভিভূত যে তারা আগামীকালের ম্যাচে কি করতে পারে টাইটেল-মোকোর টিম লিভারপুল, সেটা দেখা দিয়েছে টাইটেল ফাইট। এইসব দলের সঙ্গে বুকে বাতাস হবে না আর, সাভিভ হতে পারে শেফিল্ড ইউনাইটেদ এর কষ্টকর মিডওয়ীক কারণ তাদের শেষ পাঁচ ম্যাচেও শুধু একটি গোল করতে পেরিয়েছে। বেশি ভুল হওয়ার পর ম্যাচগুলির মধ্যে পাবে বার্নলি এবং ইউনাইটেদের দল গঠন যেভাবে ছিল, তা শেফিল্ড ইউনাইটেদ যন্ত্রটাকে আরও দুর্বল করে দিমু। সেই ৫-০ মার্চের লড়াই নামাচ্ছে পাতাচ্ছে ওই পাতিথাপ্পটার।

 

শেফিল্ড ইউনাইটেডকে একটু মনে রাখতে হবে তাদের আগামী ম্যাচের মধ্যে, কারণ এভাবে বিপক্ষের দল হতে শেফিল্ড ইউনাইটেদ পাঁচটি h2h ম্যাচ অভিযান মধ্যে একটি গোলই করতে পারেননি। এখানে গৃহীদের উদ্বোধনের জন্য মাথায় গাজা দিতে পারে নীর ল্যানে খেলার পরিকল্পনা, কারণ শেফিল্ড ইউনাইটেদ তাদের শেষ চারটি পিএল ম্যাচে বিজয়ী ছিলো একটি (ল ১)।

 

মিডওয়ীক হবার আগে সেই রেকর্ড ভূল দিল ভিজিটরদের, তারা দল গঠনের পূর্বের মতো ভয়ংকর অনুভব করেছেন। ক্রিয়েট বিপক্ষেও একটি মোহামুক্ত বিজয়ের পরিকল্পনা বাণিজ্যে সম্ভব নয়, কেননা লিভারপুলের পাল্লায় পড়েছিল একটি নিউয়র্ক বষিটা এবং এর উপসাধনে লিভারপুল ৪-৩ জিতেছিল।

পড়ুন:  Leicester City Vs Leeds United

 

এটি তাদের এই মঞ্চ ম্যাচে জিতল ম্যাচগুলিতে যা প্রাপ্ত করা হয়েছে ১৫ নির্জিত পয়েন্ট, এই লিগ সিজনে গিরোনার পরে দ্য সেকেন্ড-মোস্ট (দ্য ফাইভ সেন্টার লিগ-এর কথা বলছে)। তারপরও ওই লড়াইতে তাদের ভার্সটিগডের পরিবর্তে আরেক ছাড়া কিছুর দিকে তাকাতে হয় কিনা, কারণ তাদের দলের শেষ চারটি পিএল ম্যাচে অভিযান করার সময় উন্নত নতুন পিএল ম্যাচে শেফিল্ড ইউনাইটেদ কিছুটা ভ্লূল করে ফেলেছিলো। (দূইটি ডি, দুইটি ল).

 

নজর রাখার অবস্থান

 

শেফিল্ড ইউনাইটেদের ক্যামেরন আর্চার একটি পর্যাপ্ত আলোকিত ঘর নিশ্চিত করার আশায়।

লিভারপুলের ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আরনল্ড তাদের শেষ দুটি গেমের নির্ণায়ক গোল করেছিলেন এবং এবার এর মধ্যে শুধুমাত্র একটি গোল করার বন্ধরাগ্রস্থ হয়েছে তিনি কেবলমাত্র রেডসের জন্য ১৮টি গোলের ম্যাচে লস করেছেননি (ডাবলিউ ১৬, ডি ১)।

 

Hot stat

লিভারপুলের পশ্চাদ্বীপুটায় শূন্যে শুরুতেই জিতছেন মিয়ারবের করে এই মঞ্চে ২বার (ডি 4, ল ৫)।

 

Share.

Leave A Reply