ক্রিস্টাল প্যালেস বনাম ব্রেন্টফোর্ড প্রিভিউ

প্রিমিয়ার লিগের (পিএল) মধ্যে অপ্রথমিক যুদ্ধে অবসান হয়ে যাচ্ছে দুটি দল, ক্রিস্টাল প্যালেস এবং ব্রেন্টফোর্ড, যাদের মধ্যে প্রতিটিরই এই মৌসুমের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বাটপার হতে পারে। উভয় দলই মাঝখানে পড়েছে, সেরা ভাঙে যায় ক্রিস্টল প্যালেস যখন চেলসি বিপক্ষে ২-১ পরাজিত হয়েছিলেন একটি-৩, লিগ ম্যাচে অযথা সাফল্য লাভ করেননি।

 

সেশি সময়ের মধ্যে, পিএলের কোনও দলে নয় জরড়ের চেয়েও কম পর্দা এনেছেন রয় হডসনের বাঁধ, এই রিটার্ন তিন পয়েন্টের দলিল হিসাবে ছায়া পড়েছেন। কখনো পলাস অধিকারীর ৫টি পরলোক ম্যাচে একটি জিম্মা দিয়ে চলছে, এবং এখানে তাদের অভিভাবকরা আগেদের স্তরে আমন্ত্রিত হওয়ার পরিবর্তে এই স্তরের বিতর্ক মুড়িত করতে চাইবেন, সত্তরটি বিপক্ষের চারটি তিনির লসের গতিবিধি ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা করবেন। শব্দ সঙ্গতিতে মনে হয়, এইটা হল শুধু একটি ম্যাচ, যা প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে পূর্বলীলা ম্যাচেও একই কনফিগারেশন দেখানো হয়েছে।

 

ক্রিস্টাল প্যালেসের মত ব্রেন্টফোর্ডও যদি প্রক্রিয়াটি থেকে উপরে উঠতে পারে, তবে তাঁদের দীর্ঘতম পিএল গল্পে বিপরীতে ডাঙার চেষ্টা করতে হবে। এখানে তাদের মিশে আছে এবং এক পয়েন্ট কর্তৃপক্ষের পর এই ম্যাচডেত শুরু হবে, কিন্তু যদি অভিভাবকরা তাদের অফিসের অভিযানে সুধারে না উত্তেজনা দেখাতে পারে, যা পর্যাপ্তভাবে কম হয়ে যাচ্ছে ঘরেবারে।

 

এই মৌসুমে পথ চলার অবস্থায় ব্রেন্টফোর্ডের সপ্ত পয়েন্টকে ছাড়াও প্রিমিয়ার লিগে তিনটি দলই এখন ব্যতিত এবং অবসর থেকেও অনুগ্রহ করো জানালোক অফির অভিভাবকরা, পরস্পরেও লসিংসমূহকে বিদায় জানাতে চায়। যদিও পথ চলার অবস্থায় ব্রেন্টফোর্ড অনুসার করেছেন এক ওপর দাঁড়াতে পারেনি, এখনও ব্রেন্টফোর্ডের চেয়ে কম পয়েন্ট নির্দয় তিনটি দল আছে (W2, D1, L5)। তবে ব্রেন্টফোর্ড আশা করবেন, যখন তাদের অভিসার ক্যাপিটালে, প্রতিটি এবারও অবস্থান করতে, তখন তাদের পথ চলার অবস্থাপন্ন হয়, প্রিমিয়ার লিগ ইতিহাসের তৃতীয় লন্ডন দল হিসেবে!

পড়ুন:  ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম ব্রেন্টফোর্ড (Manchester United Vs Brentford)

 

নামচারী খেলোয়াড়গণ

যখন আত্মই এবারও কচি ম্যাচগুলি খেলে উঠেনই না, মাইকেল অলিসের হাতে থাকা তিনটি গোল ছাড়াও ক্রিস্টাল প্যালেসের দ্বিতীয় সর্বাধিক গোলটির সাথে (D3, L3)।

 

 

ব্রেন্টফোর্ডের অপ্রসারিত অবস্থাতেও আবস্যকতা আছে মিডুইকের স্কোরার ইয়োয়ান ওয়িসার, যার এই মেসুমে এলেমেলে ছয়টি গোলের উল্লেখযোগ্য অংশ পেয়েছেন, ইভান টনি এবং ব্রায়ান ম্যাবুমো অনুপস্থিতিতে এলেমেলে ইনস্পায়ারেশন থেকে।

 

হট স্ট্যাট

এই মৌসুমে ক্রিস্টাল প্যালেসের পিএল ম্যাচগুলি গড়ে তোলা ছিল ২.৪৭ গোল, সেটিই প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় সর্বনিম্ন পরিমাণের।

 

Share.
Leave A Reply