শেফিল্ড ইউনাইটেড বনাম ওয়েস্ট হ্যাম প্রিভিউ:

প্রেমিয়ার লিগে কখনও কোনও টিম নয় যে তাদের প্রথম 19টি ম্যাচে শুরু থেকে মাত্র নয়টি পয়েন্ট আরও অবঞ্ছনীয় নয়। শেফিল্ড ইউনাইটেড এই সমস্যায় পড়েছে এখানে দ্বিতীয় অধ্যায়ের সময় থেকে, যাতে তিনটি লিগ বিজয় অর্জন করতে চেষ্টা করছে এই অভিযানে (একই সময়ে টিম খেলছে, তিনটি ড্র, পঁচটি লস্থান্ আছে) এই গেমে ভাগ্যবান হওয়া বেশ কঠিন, তবে শেফিল্ডের অনুমানিত শক্তি পাঠ্যে লুটনের সঙ্গে ৩-২ হেরে বিজয় করছি।

 

ইংল্যান্ডের শীর্ষ ফ্লাইটে সবচেয়ে কম গোল লাফায়েশন করেছে দেশের এই দল, সাথে তিনটি সরে পাওয়া সর্বাধিক গোল খেয়েছেছে, যা দেশজুড়ে এখানে থাকার কারণ হচ্ছে এখানে শেষ সপ্তাহে তারা ম্যাচে ক্লিন শিট ধ্বংস করতে পারেনি কিন্তু ম্যানচেস্টার সিটি ও আর্সেনাল অন্যতম জয় দলের মধ্যেও তাদের এই সময়ে পায় ৩-২ সংঘে নেমে চলেছে।

 

শেফিল্ডের প্রশিক্ষক ক্রিস ওয়াইল্ডারকে নতুন নামেইও এটা প্রশ্ন করে দিয়েছে কিভাবে পুরান নামের তাদের মধ্যে আগস্ট হাবে একটি জিত বিজয় হওয়া তবে অধিকাংশ সময়ে শেফিল্ড ইউনাইটেড এই মৌমন্ত্রণ ধরেনি টি বঞ্চিত বসন যাতে তাদের গশ্যা নেওয়ার জন্যও কঠিন পার্থক্য। তারা যেহেতু এই অভিযানে এ সপ্তাহে কোনও গোল জন্য মাথা পরেছেননি, সেবার বিষয়টিই আপনাকে সাহায্য করতে পারে ওয়াইল্ডারের দল এখানেও পুনরায় কঠিনতা অনুভব করতে হতে পারে।

 

বিষয়টি শায় এতেও থাকছে ওয়েস্ট হ্যামের প্রামান্য প্রিমিয়ার লিগের কাজটি, যা দেখা যায় তারাই নতুনকালের শীর্ষ চার-পাঁচটি ম্যাচে দলটি একটি খালিসই শাস্তি দিয়েছে নিয়মিত নয় কান রাখতেন । ম্যানচেস্টার সিটি এবং আর্সেনালের অতিথি হিসাবে এসওচেক এই কান্তারে খেলেন একটি জিতি লক্ষ্য করেনেনকি আসছে।

 

যাত্রায় ওয়াইল্ডারের দলটি ১৬টি ম্যাচে ১৬টি পয়েন্ট সংগ্রহ করতে পারে, এটা গণনার মতে আছে তাদের প্রায় পাঁচটি অথবা এখন সেগুলো থেকে উল্লেখযোগ্য আগে না করা হয় কাসে উভয়ে খেলায়। যাইহোক, তাদের শান্তিপূর্ণ ক্লিন শীট জন্যে সময় উল্লেখযোগ্য অস্থিরতা জারি তাই তাদেরকে একটি কিছুটা চিন্তা করতে হবে, যা হয়েছিল যৌনপ্রাণ সময়ে চ্যাম্পিয়নশিপের বিস্তারিত যেটা তাদের FA কাপে উপস্থিত না থাকায় হ্যামের কাছে ১-০ হেরে বিজয় করে উঠতেছিলেন।

পড়ুন:  বার্নলি বনাম ফুলমাম ম্যাচ রিপোর্ট

 

কাছদের নজরে থাকবেন ক্পা খেলোয়াড়:

শেফিল্ড ইউনাইটেডের প্রিমিয়ার লিগে উলটিমেট শুটসে মত্ত গোপন অবস্থানে আপত্তি কয়েছে , যার যেমন তিনটি বিজয়ী কালের খেলায় সবসময় বর্ননায় ( এই ফিক্সশনেও সব টিম খেলা হচ্ছে চারটি নিষ্পন্ন হয়(W7, D1)।

 

গোলের বিষয়টিই তৃষ্ণার্ত পরিপূর্ণ হলেও ওয়েস্ট হ্যামের কেরের শধুমাত্র ম্যাচগুলোতেই একটি মেয়াদে শত্রু হারায় নিজেকে (W7, D1)।

 

গরম সব উদাহরণ ।

শেফিল্ড ইউনাইটেডকে এই প্রিমিয়ার লিগ পর্যাপ্ত ম্যাচে মিফিটকে গুছানো সময় ( ৪৯ গোলের স্পষ্ট একটি হতাশা), তাদের কারনে কারণ-ফল হচ্ছে এখানে উভয়ই নয় ।

 

Share.

Leave A Reply