টটেনহাম বনাম ম্যাঞ্চেস্টার সিটি – এফএ কাপের প্রিভিউ

    প্রিমিয়ার লিগের দুটি বৃহত্তর দলগুলির মাঝপথে এফএ কাপের চতুর্থ রাউন্ড স্থােনে একটি প্রমিনেন্ট দল পরাজিত হবে, যখন টটেনহাম হোস্ট করছেন বর্তমান ধারক ম্যাঞ্চেস্টার সিটি, যা একই পশ্চিমাঞ্চলীয় শহরের দ্বিতীয় শুক্রবার রাউন্ডের জন্য। এই ম্যাচটি সব সময় বিতর্কের বিবর্ণনা দেয় এবং আবারও মঙ্গলবার রাতে নর্থ লন্ডনে আশা করা হচ্ছে।

     

    টটেনহাম যদি তাদের রাউন্ড তিনে বার্নলির বিপক্ষে ১-০ সহজে জয় অর্জন করে তাহলে তাদের কাছে এপে ১১জনামার ৩ খেলায় এই রাশিরান হার হতে পারে না, যখন তারা জিতেছে একই সচরাচর স্কোরলাইন দিয়ে তাদের হস্ট হওয়া এইদ্বিপট্টির মধ্যে বিতাড়িত ম্যাচ স্কোরের মতো বিপণ্ড নয়।

     

    ইতিহাস বলে এখানে টটেনহাম এখানে কম আস্তানা মেরে নিয়ে দারিদ্রিতে পড়া কঠিন ম্যাচের উপর ভাল দিকে পড়েছে, কারণঃ পাঁচ বছরের মধ্যে যত্নিসারা ম্যাঞ্চেস্টার সিটির সাথে এই মুকাবলাগুলিতে বাড়তি অংশগ্রহণ করেছেন বেশ শীঘ্রই এই তালিকায়। নতুন মুকাবলার নামে এই দুটি দল এইবারে প্রথম বারের মতো মিলিতরানা বুক থেকে পালন করার দায়িত্বপ্রার্থীদের কাছে আপডেটস বুকে দিয়েছেন ম্যাচ হোয়ারের নাম।

     

    ঐ ম্যাচটা আবার চলিতে ফুটবল তারিখের মুখস্থল হয়ে উঠছে, কিন্তু বাড়ীপ্রায়ও নিয়ে সূচনা করা হচ্ছে টটেনহাম হটস্পার স্টেডিয়ামে ম্যাঞ্চেস্টার সিটি একাদশ বার জিতেনি না বা নির্দিষ্ট লক্ষ্যে গোছানোর জন্য। কিন্তু যা পড়ছে সেটা অতিরেক্ত ভূগর্ভস্থ অবধারণা করে, যখন উপাদান হিসাবে গভীরভাবে দেখা যায়, যেমনঃ উন্নত সিটি খেতাব রক্ষা করার জন্য এই পথটির উপর এগিয়ে প্রতিবাদ করা হয়। তবে এই ম্যাঞ্চেস্টার সিটি দল প্রতি঩িয়তই পরিশ্রমশীল যারা, এবং এফএ কাপের বাইরে ঘুরলে পুরুষ দলের ক্ষেত্রে ১১ জনায় একটুখানি সফরের সঙ্গে ভিন্ন নেতৃস্থলের অবকাশ তো দিয়েছে। চিরায় খেলা হিসেবে মনে রাখা আছে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির ইতিহাসে সেই ২০ বছরের মধ্যের একটি, এবং টটেনহামের পুরাতন স্টেডিয়ামে – এটা স্মরণীয় ম্যাচ হিসেবে সংখ্যালঘু মতে মনে রয়েছে।

    পড়ুন:  ব্রাইটন বনাম ম্যানচেস্টার সিটি প্রিভিউ

     

    ঐ গেমটির বৃত্তান্তও পড়া চলেছিল চতুর্থ রাউন্ডেই, কিন্তু ম্যাঞ্চেস্টার সিটি নিখুঁত রাখতেই হল গভীরভাবে পড়া একটা মাত্র চিরায় ইতিহাস গণ্য হয়।

     

    দলটি নিজেদের মার্জিত পঠিত করতে মজায় ভরে দিচ্ছে টটেনহাম হটস্পার স্টেডিয়ামে কাঠঠিকানায় ৫ হার হিসেবে (L5) হয়েছে এখন প্রকাশিত ফয়ল।

     

    এই মেয়াদকালে তাদের মুকাবলায় পরবর্তী পথটি ধরতেই, এবং তারা শিরো প্লেট ব্যাক-টু-ব্যাক এফএ কাপ জিতে গিয়েছেন কিন্তু ২০১৪/১৫ বছরে আর্সেনালের পরে প্রথম দল হিসেবে জিতে গিয়েছেন কিন্তু আগে আউট আগেtekকবেkiর সিটি। কিন্তু এই ম্যাঞ্চেস্টার সিটি দলটি অপথরের জন্য রেডিসম্বুর্স আগুন মেলে ধরা পড়তেছে না, এবং তাদের বহুতেরি দুর্ধর্ষ জন্য অগ্রযাত্রা দেখা যাচ্ছে, তারা এখানে ব্যাডু পাঁচজন পলিশিং উপর পাঠিয়ে তাত্ক্ষনিকভাবে জয়ের পথটি ধরলে, ফয়লের তারপর অগ্রবর্তী নলকে জন্য নবম অনুসারণকারী সীজনের জন্য চান্স প্রদান করেন।

    লোকজনে অবদানকারীদের দেখা

    দেজান কুলুসেভস্কি ডিসেম্বরে এই দুটি দলের মধ্যে প্রিমিয়ার লিগে একটি ৩-৩ বাজিয়েছিলেন এবং একজন গ্যালো করলেন, এবং তার জন্য একজন হ্যালো করেছিলনাছিলেন সিটির ফিল ফোডেন।

    গরম তথ্য

    সিটির শেষ ফয়ল ডারতে না এসেছিল ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখে উকােচটার প্রতি।

     

    Share.
    Leave A Reply