টোটেনহাম বনাম ম্যানচেস্টার সিটি ম্যাচ রিপোর্ট

নাথান একের দীর্ঘদিনের গোলের জন্য ম্যানচেস্টার সিটি টটেনহাম হটসপারকে এফএকাপের চতুর্থ রাউন্ডে ১-০ জিৎসে পেল, এই সংঘর্ষের পাঁচটি রাউন্ডকে সংঘর্ষের মাধ্যমে অতিক্রম করে নবম সারি জিততে।

 

সিটিজেনস এখনও কোটেডানো হয়নি টটেনহাম হটসপার স্টেডিয়ামে গোল, এবং ওস্কার বব ফোডেনের প্রচেষ্টার পরে ঒পচারক অবস্থান নেওয়ার সময় মার্জিনালি আউটসাইড হয়ে গেলে নিকোলস ভিকারিও ফাঁদে বল পৌছানে।

 

এর সাথেও, পেপ গুয়ার্ডিওলা গ্রীষ্মকালের শীতল শুরু করেছেন স্পারসকে ছাড়িয়ে, উত্কর্ষট শ্বস্ত্রিকের এবং মাটিয়া কোভাচিচের হাতে ব্লক করা অপরে ছাতুরী সত্ত্বেও। তারা তাদের নিজস্ব কচেষ্টায় আগে চলে গিয়েছিলেন কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে প্রবেশ পাওয়া অনুযায়ী উপযুক্তভাবে নষ্ট হয়ে গেল।

 

পর্যাপ্ত সুযোগ তবে সিটির জন্য প্রথম হাফের মাঝের পর-চাপগুলি ধন্যবাদ তপফনের জবাব দিয়েছিলো ছাতুরী পেদ্রো পুরোর জন্য অন্যদিক থেকে। ওইটা পরিবর্তে জুলিয়ান আলভারেজ ব্যবহৃত অপত্যটি মারা গেল যখন তার পয়েন্ট বাগান হয়ে পড়লো। তবে প্রতিযোগিতা শুরু হওয়ায় কৌশলে কাজে আরো লম্বা বিচ্ছিন্নতা ছিল না, এবং বব পিটার পরোর দ্বারা নিশ্চল রূপে আটকানো হয়ে গেলো।

 

দ্বিতীয় অধ্যায়ের শুরুতেই ববের জীবনে অংশ নিয়েছিল, যদিও মিকি ভ্যান দে ভেন এবং পিয়ের-এমিল হয়বার্গ আলবের্ট এবং জশ্কো গ্যার্ডিয়োল ক্রমশ অসাধারণ উপস্থিতি দিয়ে জীবনের চেটুলে থেকে সাক্ষ होরाह। জনসাধারণ ওরেগার্টা অন্য প্রভাবশালী ছিল জর্কসোর শেষে যখন তার দলটি ক্রমাগত দলের হাইলাইট ছিলেন কেভিন দে ব্রুয়ন এবং জেরেমি ডুকু অপসারণ হওয়ার পরেই আগামীকালের প্রথম সময়সংক্রান্তে।

 

নবম সারি জিত অরিজিনাল হাইটেটে কেভিন দে ব্রুয়ন এবং জেরেমি ডুকু উভয়েই বিজ্ঞাপন করেছিলেন। তবে তারা-ই সিটির সিরিয়েল শ্রেণিতে জয়ী হওয়ার বিপজ্জনক সুযোগও কোডটা উপযোগী বললই।

 

নাথান একে সেই জয় পেলায় এফএকাপের ১২তম নির্বাসিত যাত্রায় যাপন করেছে তারা, এই প্রতিযোগিতা বাধাটিকে আর্সেনালের পর প্রায় গোল দিয়ে এবারও উজ্জীবিত করার উদ্যেশ্যে।

পড়ুন:  ফুলহাম বনাম নিউকাসল ম্যাচ রিপোর্ট

 

এর সাথেও, এই সংঘর্ষে ইনধনযোগ্য স্পারস দিয়ে মুখোমুখি হয়েছিলেন সিটি তাদের মহক্ষোভ এফএ কাপ শিরোনামটি রক্ষা করতে পারে।

 

ইতামধ্যেই পূর্বে আছে প্রিমিয়ার লীগ দলের অন্যান্য দলের বাইরে চলে গেলে, সিটি এখনও এই প্রতিযোগিতার অধিভুক্ত অনুভব করছে।

 

স্থিতিশীল টটেনহামের প্রতি পরাজনাও গোলের বদলে সিটির জন্য সাধারণ স্পারস দলের মধ্যেও দিয়ে যাওয়ানোর মন যেন হয়ে যায়। এই ম্যাচে ওয়েল করা উদ্দেশ্য পূরণের জন্য সিটি সম্ভবত উচ্চতা পেয়ে যায়, এবং ছাতুরীটি সঠিক মেধায় জয় পেলে। তারা এখানে একটি দলের মত দলকে পেটাতে সহজ, এফএ কাপে।

 

Share.

Leave A Reply