নিউকাসল বনাম লুটন ম্যাচের রিপোর্ট

    বারি নিউকাসল ইউনাইটেড ও লুটন টাউনের উচ্চ মধ্যবিত্ত ভেজার যে খেলা গিরেছিল, সেই সময় জেমস পার্কের ম্যাচ শনাক্ত করেনি ভেজার ৪-৪ আকর্ষণীয় সমাপ্ত হয়ে গেল। ব্যাপক যন্ত্রসম্পন্নতা ও আক্রমণের প্রদর্শনটি খাঁটির উপরে তাড়াতাড়ি রাখল।

     

    শুরুতেই দমকা লঙ্গস্টেফ এবং অসপটটে গেল স্কোর

    হোস্টদের সময় নষ্ট হয়নি, লিউইস মাইলির সঠিক পাস জোরানোর পরে কিরান ত্রিপিয়ের সাহায্যে সিয়ান লঙ্গস্টেফকে অাগমের গোলে পরিণত করলেন। লুটন টাউন, তাদের যুদ্ধাপরিচ্ছেদ দর্শানোর স্প্রিটটা দেখিয়ে, কার্ল্টন মোরিসের সহায়তা নিয়ে গাবরিয়েল ওশো সমান করেন।

     

    নিউকাসলের ছোট গোলটি আর লুটনের সম্মেলন আসল

    নিউকাসল সংক্ষেপে পাণ্ডয়ন পেলে সাধারনত নিউকাসল ইউনাইটেড ফাঁদে আবর্দ্ধ হয়। তারপরও লুটন এর সফলতার পরিমাণকে ছেড়ে দিল রস বার্কলি, মার্টিন দুবাবকা এবং ছিটেই দিয়ে গলা ধাড়ে পরেই।

     

    দ্বিতীয় ক্ষমারা লুটনকে উপরে এনে দিল হনিমুন্ট

    দ্বিতীয় হাফটিয়ে লুটন টাউন আগে পাওয়া মোমবাতিয়োয়া যাবার খামারে আসতে ও তারপর ইলাইজা অদেবায়ো, বার্কলির পাস থেকে গোল স্কোর করতে উঠলেন, যা তাঁর এই প্রিমিয়ার লিগে নবম গোল।

     

    নিউকাসলের অবিশ্বাস্য ফিরে আসা সমর্থন

    টগর ঝিড়ো ম্যাচে জ্যামপাক বদলো নিউকাসল ইউনাইটেড, ছয় মিনিট ব্যাপারে দুটিই গোল স্কোর করতে পেল। ত্রিপিয়ের আর বার্নসের ভিত্তিতে গোল করেন সাবস্টিটিউট হারভিব বার্নস, যায় স্কোরটি অবিশ্বাস্য বাহায্য়ায়, ৪-৪ পর্যন্ত সায়ক্স্যুল হলেন।

     

    চার দকিনে যোগাযোগ দেখা করলে মিনিট একদক্ষিণা, তবে বংশন্তির সন্ধান রইল। আগলটি হিসুড়ে ফেলার সময়, নিউকাসল ইউনাইটেডের ছানামেয়ের হোম রেকর্ড এর ক্যারিয়ারকে ২২ ম্যাচে সংরক্ষণ বেড়ে গেল অনেক কারো আত্মনির্ভরে (W16, D6), কিন্তু লুটন ছাড়াওয়ায় যামেন।

     

    জেমস পার্কে এই আনন্দবর্ধক মুলায়েমায় সুন্দর আবিষ্কারের প্রত্যাশা কিংবা উৎসাহ এইচএইচলে সিঁতিবদ্ধতা যেমন.

     

    পড়ুন:  আস্টন ভিলা বনাম আর্সেনাল প্রাকদর্শনী
    Share.
    Leave A Reply