২০২২ সালের কাতারে অনুষ্ঠিতব্য ফিফা বিশ্বকাপ যেন মুহূর্তেই ঘনিয়ে আসছে। আগামী নভেম্বর মাসের মাঝ বরাবর বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের সেরা ৩২টি দেশ/দল কাতারে বিশ্ব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের জন্য প্রাণপণ লড়াইয়ে লিপ্ত হবে। ইতিমধ্যে একটি ঐতিহাসিক ইভেন্টে পরিণত হওয়া এই টুর্নামেন্টে তারা সুযোগ পাবে পুনরায় ইতিহাস গড়ার। এটি একাধারে মধ্যপ্রাচ্যে এবং শীতকালে অনুষ্ঠিত প্রথম বিশ্বকাপ হতে চলেছে, যার সবগুলি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ক্লাব ফুটবলের চলতি মৌসুমের মাঝেই।

পুরো বিশ্বের চোখ থাকবে কাতারের উপর, কারণ বিশ্বের সকল স্পোর্টস এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দর্শকপ্রিয় ইভেন্টটি খুব শীঘ্রই আড়ম্বরের সাথে শুরু হতে যাচ্ছে।

বিশ্ব ফুটবলের সর্বশেষ আসরটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৮ সালে, ইউরোপের রাশিয়ায়। সেই টুর্নামেন্টটিতে ইউরোপের দল হওয়ার সুবাদে একটি সুবিধা পায় ফ্রান্স, এবং তার পাশাপাশি তাদের দলের অসাধারণ সব প্রতিভার উপর ভর করে তারা টুর্নামেন্টটি বেশ স্বাচ্ছন্দ্যের সাথেই জিতে নেয়।

লা ব্লুস’রা ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপে সুযোগ পাবে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুটটি ধরে রাখার, এবং বহু ফুটবল বিশারদের মতেই তারা সেটি করার জন্য বেশ বড়সড় ফেভারিটও বটে। পরিসংখ্যানও তাদের পক্ষেই, যদিও পর পর দুইটি বিশ্বকাপ জেতার ঘটনা খুবই বিরল।

ফ্রান্সের সেই মুকুটটির জন্য হুমকিস্বরূপ অবশ্য বিভিন্ন দলকেই চিহ্নিত করা যায়, যার মধ্যে অন্যতম হল ব্রাজিল, ইংল্যান্ড, আর্জেন্টিনা, এবং পর্তুগাল। এবারের কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ কে অনেকেই আখ্যা দিয়েছেন ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাসে অনুষ্ঠিতব্য সবচেয়ে বড় মাপের এবং আকর্ষণীয় টুর্নামেন্ট হিসেবে।

আপনি একজন মরনপ্রাণ ফুটবল সমর্থক হোন, বা একজন ক্যাজুয়াল ফুটবল দর্শক, এমন দর্শকই হোন যিনি চার বছর পর পর ফুটবল অনুসরণ করেন বা এমন যিনি প্রথমবারের মত ফুটবল খেলা দেখতে চলেছেন, কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ নিজ চোখে দেখতে পেরে যদি আপনি নিজেকে ভাগ্যবান মনে না করেন, তাহলে আপনার অবশ্যই ডাক্তার দেখানো উচিৎ।

কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ কবে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে? (When is the World Cup 2022?)

প্রকৃতপক্ষে কবে শুরু হতে যাচ্ছে ২০২২ সালের কাতার ফুটবল বিশ্বকাপ? আগামী নভেম্বর মাসের ২০ তারিখে রোজ রবিবার শুরু হতে যাচ্ছে এই বৈশ্বিক ইভেন্ট, যার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে চলেছে বর্তমানের পপ দুনিয়ার সবচেয়ে বড় নামগুলির একটি – বিটিএস (দক্ষিণ কোরিয়া)। প্রতিযোগিতাটির উদ্বোধনী ম্যাচে সেদিনই মুখোমুখি হবে হোস্ট দেশ কাতার এবং দক্ষিণ আমেরিকার দল ইকুয়েডর।

কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ এর সমাপনী অনুষ্ঠান এবং টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ১৮ই ডিসেম্বর ২০২২, রোজ রবিবার, টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার ঠিক ২৮ দিনের মাথায়। 

কোথায় শুরু হবে কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ এর পথচলা? (Where does the World Cup begin?)

২০২২ সালের ফিফা বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হতে চলেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে, এবং দেশটির মোট ৮টি স্টেডিয়াম জুড়ে এই টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। এই ৮টি ভেন্যু অবস্থিত মূলত কাতারের রাঝধানী দোহায় এবং তার পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন শহরে, যেমন লুসেইল, আল খোর, আল রাইয়ান, আল ওয়াকরাহ্ ইত্যাদি। 

এই ৮টি স্টেডিয়ামের মধ্যে ৭টির নির্মাণ বা মেরামত কাজই শেষ করা হয় দুই বছর আগে, শুধুমাত্র এই বৈশ্বিক ইভেন্টটিকে সামনে রেখে। শুধুমাত্র দোহায় অবস্থিত খলিফা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামটিই আগে থেকে প্রস্তুত ছিল বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য, কারণ ১৯৭৬ সালে নির্মিত সেই স্টেডিয়ামটিকে ২০১৭ সালেই সর্বশেষ মেরামত করা হয়েছিল, এবং অত্যাধুনিক একটি স্টেডিয়ানে পরিণত করা হয়েছিল। 

পড়ুন:  ফুলহ্যাম বনাম ব্রাইটন এন্ড হোভ এলবিয়ন প্রিভিউ এবং প্রেডিকশন - ৩০/০৮/২০২২

২০২২ সালের ফুটবল বিশ্বকাপে কোন কোন দেশ অংশ নিবে? (What countries are playing in the 2022 World Cup?)

সর্বমোট ৩২টি দল এবারের ফুটবল বিশ্বকাপের জন্য কোয়ালিফাই করতে পেরেছে। এর মধ্যে প্রত্যেকটি দল যে শুধু তাদের দেশ বা দেশের অন্তর্গত সকল নাগরিকদের আশা ভরসার প্রতীক তাই নয়, বরং এমনও অনেক দল রয়েছে যাদের উপর তাদের পুরো মহাদেশের সম্মান নির্ভর করছে।

প্রত্যেক মহাদেশ থেকেই এক বা একাধিক দল এবার বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করবে। বিভিন্ন বিভাগ যেমন আফ্রিকা (সিএএফ), এশিয়া (এএফসি), ইউরোপ (উয়েফা), উত্তর ও মধ্য আমেরিকা এবং ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জ (কনকাকাফ), ওশেনিয়া (ওএফসি), এবং দক্ষিণ আমেরিকা (কনমেবল) থেকে বিভিন্ন দল কাতারে পাড়ি জমাবে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরে অংশগ্রহণ করার লক্ষ্যে।

এই ৩২টি দল টুর্নামেন্টটিতে অংশ নিবে ৮টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে, যার প্রত্যেকটিতে থাকবে ৪টি করে দল। প্রত্যেক গ্রুপ নির্ধারিত হয়ে গিয়েছে ড্র এর মাধ্যমে। সেখান থেকে তারা একে অন্যের সাথে লড়াই করবে নক আউট পর্যায়ে ওঠার জন্য। এবারের ফিফা বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাচ্ছে যে ৩২টি দল তারা হলঃ

গ্রুপ এঃ কাতার, ইকুয়েডর, সেনেগাল, নেদারল্যান্ডস

গ্রুপ বিঃ ইংল্যান্ড, ইরান, যুক্তরাষ্ট্র, ওয়েলস

গ্রুপ সিঃ আর্জেন্টিনা, সৌদি আরব, মেক্সিকো, পোল্যান্ড

গ্রুপ ডিঃ ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, ডেনমার্ক, তিউনিশিয়া

গ্রুপ ইঃ স্পেন, কোস্টা রিকা, জার্মানি, জাপান

গ্রুপ এফঃ বেলজিয়াম, কানাডা, মরক্কো, ক্রোয়েশিয়া

গ্রুপ জিঃ ব্রাজিল, সার্বিয়া, সুইজারল্যান্ড, ক্যামেরুন

গ্রুপ এইচঃ পর্তুগাল, ঘানা, উরুগুয়ে, দক্ষিণ কোরিয়া

২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ জেতার জন্য ফেভারিটস কারা? (Who is the favourite to win the FIFA World Cup 2022 in Qatar?)

বিশ্ব বিখ্যাত বেটিং কোম্পানি বেট ৩৬৫ কর্তৃক আয়োজিত ভোটে এমনটিই উঠে এসেছে যে ৪/১ অডস নিয়ে ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ জেতার জন্য সবচেয়ে ফেভারিট দল হচ্ছে ৫ বারের বিশ্বকাপজয়ী ব্রাজিল।

এছাড়া অডস এর দিক দিয়ে দেখলে ফেভারিটদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। এছাড়া, ৭/১ অডস নিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের জন্য ফেভারিটদের তালিকায় চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা, এবং ১২/১ অডস নিয়ে তালিকাটির ৮ম স্থানে রয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো’র দল পর্তুগাল। (এটিও মনে রাখতে হবে যে, এসকল বেটিং অডস কালের ক্রমে পরিবর্তনও হয়ে থাকে।)

বিশ্বকাপের ম্যাচগুলি আমরা কোথায় দেখতে পাব? (Where can I watch the World Cup?)

বিশ্বকাপ ২০২২ এর ম্যাচগুলি মোটামুটি পৃথিবীর সকল দেখেই সরাসরি সম্প্রচারিত হবে, এবং এই শোপিছ ইভেন্টটি বিভিন্নভাবে এবং বিভিন্ন উপায়ে ঘরে বসেই উপভোগ করা যাবে।

হুলু, ইউটিউব, টিভি, পিকক, শোম্যাক্স ছাড়াও পৃথিবীর সবচেয়ে নামীদামী টেলিভিশন চ্যানেল ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলি এই টুর্নামেন্টের সম্প্রচার সত্ত্ব কিনে নিয়েছে, এবং তাদের মাধ্যমেই আমরা ইভেন্টটি উপভোগ করতে পারব। এসকল স্ট্রিমিং সার্ভিসের মধ্যে বেশির ভাগই এক মাসের একটি ফ্রি ট্রায়াল পিরিয়ড অফার করে থাকে। সেটির সুবিধা নিতে আপনি বিশ্বকাপ শুরুর ঠিক আগেই একটি সাবস্ক্রিপশন কিনে নিতে পারেন, এবং পুরো টুর্নামেন্টটি স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে উপভোগ করতে পারেন।

পড়ুন:  এবারের বিশ্বকাপে কোন কোন ধরণের বুটস পড়েছেন ফুটবল তারকারা?

টেলিভিশন চ্যানেলগুলির মধ্যে আফ্রিকায় সুপার স্পোর্টস, আমেরিকায় ফক্স স্পোর্টস, যুক্তরাজ্যে বিবিসি ও স্কাই স্পোর্টসসহ সারা বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন টিভি চ্যানেল এই পুরো ইভেন্টটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

আমি কি বিনামূল্যে ফিফা বিশ্বকাপ লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারব? (Can I stream the FIFA World Cup 2022 for free?)

হ্যাঁ, টুবি (Tubi) নামক একটি বিজ্ঞাপন-সমৃদ্ধ স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে আপনি এবারের ফুটবল বিশ্বকাপের ম্যাচগুলি স্ট্রিম করতে পারবেন ঠিকই, কিন্তু সরাসরি বা লাইভ নয়, বরং এক্সক্লুসিভলি, অর্থাৎ ম্যাচ শেষ হওয়ার কিছুটা পরে। তাও আবার সবকটি ম্যাচ আপনি সেখানে দেখতে পারবেন না, বরং শুধুমাত্র সেসকল ম্যাচই দেখতে পাবেন যেগুলি থাকবে দর্শক চাহিদার শীর্ষে।

এর পরের ফিফা বিশ্বকাপটি কবে অনুষ্ঠিত হবে? (When is the next FIFA World Cup?)

এবারের কাতার বিশ্বকাপের ঠিক পরে যে ফিফা বিশ্বকাপটি অনুষ্ঠিত হবে সেটি হল ফিফা মহিলা বিশ্বকাপ ২০২৩, যা আগামী বছর অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে মাঠে গড়াবে। টুর্নামেন্টটি আগামী বছরের ২০ই জুলাই থেকে ২০ই আগস্ট পর্যন্ত মাঠ কাঁপাবে।

এর পরের পুরুষ বিশ্বকাপটি অনুষ্ঠিত হবে ২০২৬ সালে। বিশ্বকাপ ফুটবলের ইতিহাসে প্রথমবারের মত সেই বিশ্বকাপটি আয়োজন করতে যাচ্ছে তিনটি আলাদা দেশ — যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, এবং মেক্সিকো।

উত্তর আমেরিকার তিনটি বড় বড় দেশ (যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, এবং মেক্সিকো) তাদের বিভিন্ন শহরের বিভিন্ন স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপটি আয়োজন করবে এবং সেবারের বিশ্বকাপটিতে ফিফা একটি নতুন ফরম্যাটও পরিবেশন করবে বলেই জানা যাচ্ছে।

স্পোর্টস দুনিয়ার সবচেয়ে বড় ইভেন্টটি সেবার আয়োজিত হবে লস এঞ্জেলেস, মায়ামি, নিউ ইয়র্ক/নিউ জার্সি, আটলান্টা, বস্টন, ডালাস, হিউস্টোন, কান্সাস সিটি, ফিলাডেলফিয়া, স্যান ফ্রান্সিসকো, সিয়্যাটল, গুয়াদালাহারা, মেক্সিকো সিটি, মন্টারে, টরোন্টো এবং ভ্যানকুভারের মত বিশ্বের সবচেয়ে বড় বড় এবং নামী দামী শহরগুলিতে।

কাতারে অনুষ্ঠিতব্য ২০২২ সালের বিশ্বকাপটির ফরম্যাটের কারণে, যার ফলে টুর্নামেন্টটি নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে, পরবর্তী অর্থাৎ ২০২২ সালের ক্লাব বিশ্বকাপেও তার কিছুটা প্রভাব পড়তে চলেছে। যদিও টুর্নামেন্টটির এখনো কোন অফিশিয়াল ফিক্সচার বা শিডিউল প্রকাশ করা হয়নি, তবুও এমনটিই জানা যাচ্ছে যে, টুর্নামেন্টটি পিছিয়ে গিয়ে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হতে পারে।

২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটি কোন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে? (Where is the FIFA World Cup 2022 stadium for the Final?)

কাতারে অনুষ্ঠিতব্য ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২ এর ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে কাতারের ঐতিহাসিক লুসেইল স্টেডিয়ামে, যার ধারণ ক্ষমতা ৮০,০০০।

কাতার বিশ্বকাপে যেভাবে ভ্রমন করতে পারবেন (How to go to Qatar World Cup)

দেশটির নিজস্ব এয়ারলাইন কোম্পানি — কাতার এয়ারওয়েজ — বিশ্বকাপ উপলক্ষে বিভিন্ন দেশ থেকে সরাসরি দোহার উদ্দেশ্যে ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে। এই উদ্দেশ্যে তারা নিজেদের এরোপ্লেনগুলি ছাড়াও বিশ্বের আরো অনেক বড় বড় এয়ারলাইনসের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে, যেমন আমেরিকান এয়ারলাইনস এবং ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ ইত্যাদি।

দোহায় অবস্থিত হামাদ আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্টই (ডিওএইচ) হল কাতারের একমাত্র আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্ট। তাই, বিশ্বকাপ উপলক্ষে দেশটিতে আগমণকারী সকল ফ্লাইটকে ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়ে গ্রহণ করে নিবে এই এয়ারপোর্টটিই।

কাতারে হোটেল এবং বাসস্থান ব্যবস্থা (Hotels and accommodation in Qatar)

দেশটি বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২ উপলক্ষে নিজেদের একোমোডেশন বা বাসস্থান ব্যবস্থার দিকে অনেক বেশি নজর দিয়েছে, এবং উন্নতিও করেছে, এবং এখন তারা সম্পূর্ণরূপে আত্মবিশ্বাসী যে সারা বিশ্বের ফুটবল প্রেমীদের আমন্ত্রণ জানাতে তারা প্রস্তুত। পর্যটকদের সুবিধা ও বিশ্রামের জন্য ব্যবহৃত হবে কাতারের বিখ্যাত সব হোটেল এবং রিসোর্টগুলি, যার মধ্যে অন্যতম হল ব্যানিয়ান ট্রি দোহা, জুলাল ওয়েলনেস রিসোর্ট, এবং সেইন্ট রেজি’স কাতার ইত্যাদি। এমন অসাধারণ সব জায়গায় থাকতে পেরে সারা বিশ্বের ফুটবল প্রেমীরা সত্যিই খুব আনন্দঘন একটি স্মৃতি নিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন বলেই আশা করা যাচ্ছে।

পড়ুন:  কেন প্রিমিয়ার লীগের রেফারিদের ম্যাচ পরিচালনা নিয়ে বার বার প্রশ্ন উঠছে?

কাতারের আবহাওয়া আসলে কেমন? (What is Qatar’s weather like?)

যদিও এই ইভেন্টটিকে একটি শীতকালীন বিশ্বকাপ হিসেবেই বিশ্বের সামনে তুলে ধরা হয়েছে, তবুও এটি না বললেই নয় যে, বছরের এই সময়েও কাতারের আবহাওয়া বেশ উষ্মই থাকে। কাতারের বা মধ্যপ্রাচ্যের শীতকালকে প্রকৃতপক্ষে ইউরোপ বা আমেরিকার গ্রীষ্মকালের সাথেও তুলনা করা যায়। এ সময় কাতারে গড় তাপমাত্রা থাকে ৭৯ ডিগ্রী ফারেনহাইট।

গ্রীষ্মকালে কাতারে যেমন অসহনীয় গরম অনুভূত হয়, সেটি মাথায় রেখেই ফিফা কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেয় যে এবারের বিশ্বকাপটি শীতকালে অনুষ্ঠিত হবে, কারণ এ ব্যাপারে কোনই সন্দেহ নেই যে, সেরকম গরমের মধ্যে খেলাধুলা করলে বিশেষ করে ইউরোপ ও আমেরিকার খেলোয়াড়েরা অসুস্থই হয়ে পড়বেন। এছাড়া, নভেম্বর-ডিসেম্বরের দিকে সেখানকার আবহাওয়া ফুটবল খেলা এবং ভ্রমন উভয়ের জন্যই বেশি মানানসই।

কাতারের মূদ্রা কি? (What is the currency in Qatar?)

দেশটির অফিশিয়াল মূদ্রার নাম হল ‘কাতারি রিয়াল’। আপনি কোন দেশ থেকে কাতারে ভ্রমন করছেন, তার উপর ভিত্তি করে এক্সচেঞ্জ রেট ওঠা নামা করতে পারে।

আপনি কি কাতারে মদ্যপান করতে পারবেন? (Can you drink in Qatar?)

২১ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সের মানুষদের জন্য কাতারের লাইসেন্স সম্বলিত বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট ও বারে স্বাচ্ছন্দ্যে মদ্যপান করার ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া, যেসকল স্টেডিয়ামে খেলা অনুষ্ঠিত হবে, সেসকল স্টেডিয়ামে খেলা চলাকালীন অবস্থায় নির্ধারিত কিছু স্থানে দর্শকরা যা খুশি তাই খেতে বা পান করতে পারবেন। তবে, সেসকল স্থানের বাইরে মদ্যপান করা পুরোপুরিভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা সকলের জেনে রাখা দরকার (Important things to note)

এবারের বিশ্বকাপ ফুটবল কাতারে অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে বিশ্বব্যাপী এক ধরণের নেতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরি হওয়ার একমাত্র কারণ হল কাতারের বাজে মানবাধিকার রেকর্ড। তবে, এটি মানতেই হবে যে, সাম্প্রতিক কালে বিভিন্ন বিষয়ে দেশটি তাদের কঠোর নিয়মকানুন কিছুটা সহজ করেছে, এবং সকল প্রান্তের ও সকল ধরণের মানুষকে সম্মানের দৃষ্টিতে দেখতে শিখেছে।

আপনার জন্য যদি কাতারের সেই দিকটি অনেক বড় একটি সমস্যা হয়ে থাকে, তাহলে বিশ্বের অন্যান্য ৫০০ মিলিয়ন (ফিফা’র সার্ভে অনুসারে) দর্শকের মত আপনিও ঘরে বসেই টুর্নামেন্টটি উপভোগ করুন। এছাড়া, বলাই বাহুল্য, অন্য যেকোন ইসলামিক রাষ্ট্রের মতই কাতারেও জনসাকুল্যে মদ্যপান বা অন্তরঙ্গ মুহূর্ত কাটানো (বিশেষ করে সমকামী যুগলদের মধ্যে) পুরোপুরিভাবে নিষিদ্ধ।

তবে, যেহেতু ফুটবল সমর্থকদের সাথে অ্যালকোহল নামটি বেশ ওতপ্রতভাবেই জড়িত, সেহেতু কাতারের বিশেষ কিছু ফ্যান পার্ক ও ভেন্যুতে অ্যালকোহল জাতীয় দ্রব্য বিক্রি করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

Share.
Leave A Reply